চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দলের বাইরে রেখে ডি মারিয়ার সমর্থন চান আর্জেন্টিনা কোচ

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে জাতীয় দলে নিজের নাম না দেখে খেপেছেন আর্জেন্টাইন উইঙ্গার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। এক হাত নিয়েছেন জাতীয় দল কোচ লিওনেল স্কালোনিকে। জবাবে নরম হয়েছেন কোচ, জানিয়েছেন ডি মারিয়াকে দলে না রাখার কারণ।

আগামী মাসে ইকুয়েডর ও বলিভিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে নিজেকে দলে না দেখে ক্ষোভ সামলাতে পারেননি ডি মারিয়া। ক্লস কন্টিনেন্টালকে সাক্ষাৎকারে পিএসজি তারকা উগরে দিয়েছেন ক্ষোভ, ‘আমি কোনো কারণ খুঁজে পাইনি। কী বলবো জানি না।’

বিজ্ঞাপন

‘ক্লাবে আমি আমার সর্বোচ্চটাই দেয়ার চেষ্টা করি। যেন জাতীয় দলে ডাক পাই, আর লড়তে পারি। ভালো ফর্মে থাকার পরও আমাকে কেনো দলে ডাকা হল না তা বোঝা মুশকিল। হতে পারে আমাকে ডাকা হয়নি, কারণ তারা আমাকে দলে চায় না। কিন্তু আমি দলে ঢোকার জন্য লড়াই করে যাবো।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘আমি কি ৩২ বছর বয়সে বুড়ো হয়ে গেছি? যদি তারা আমার বিকল্প খোঁজা শুরু করে তাহলে সবারই বিকল্প খুঁজতে হবে। আমার জন্য, মেসি, আগুয়েরো এবং নিকোলাস ওটামেন্ডিসহ যারা ভালো ফর্মে আছে তাদের জন্যও।’

ডি মারিয়ার জবাবে মুখ খুলেছেন আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি। জানিয়েছেন তার জন্য এখনো আর্জেন্টিনার দরজা বন্ধ হয়ে যায়নি। তবে ঠিক কী কারণে এ উইঙ্গারকে রাখা হয়নি সেটা পরিষ্কার করেননি।

‘আমরা কারো জন্যই দরজা বন্ধ করিনি। জাতীয় দলে খেলার অধিকার সবারই আছে। জাতীয় দল সবার। যেসব খেলোয়াড়দের খেলার সুযোগ আছে, আমরা চাই তারা নিজেদের দলের অংশ মনে করুক। তারা যেন জার্সি উঠিয়ে (অবসর) না রাখে।’

‘সাবেক আর্জেন্টিনা কোচ হোসে পেকারম্যান আমাদের ফুটবল সম্পর্কে শিখিয়েছেন, কীভাবে জাতীয় দলকে রক্ষা করতে হয়। সবাই অর্থটা বুঝতে পারতো এবং কখনোই মন খারাপ করেনি। যারা খেলতে পারবে না তারা যেন বাইরে থেকে দলকে সমর্থন দেন এবং তাদের সেটা বুঝতে হবে।’