চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দর্শকের বিবেক নাড়িয়ে দিয়েছে আরিয়ানের ‘উপহার’

এবার দর্শক কাঁদাচ্ছে আরিয়ানের ‘উপহার’

আবেগ ছুঁয়ে যাচ্ছে প্রতিটি স্তরের দর্শকদের। কারণ, ভিন্ন ধারার গল্পে সাজানো বিশেষ এই নাটকে রয়েছে মধ্যবিত্ত জীবনের টানাপড়েন আর বৃদ্ধ বাবাকে অবহেলার গল্প।

সিএমভি প্রযোজিত বিশেষ এই নাটকের নাম ‘উপহার’। নির্মাণ করেছেন ‘বড়ছেলে’ খ্যাত মিজানুর রহমান আরিয়ান। নাটকের প্রধান তিন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আবুল হায়াত, আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

‘উপহার’ ইউটিউবে উন্মুক্ত হওয়ার পর ৮ জুন পর্যন্ত অতিক্রম করেছে প্রায় পৌনে ২৭ লাখ ভিউয়ের ঘর। কমেডির বাইরে গিয়ে সিরিয়াস গল্পের নাটকেও এমন ভিউ হতে পারে- সেটা আবারও প্রমাণ করলেন নির্মাতা-গল্পকার আরিয়ান।

নাটকটির কমেন্ট বক্সে চোখ বোলালে দেখা যাবে, দর্শকদের কণ্ঠে ঝরছে আবেগের বৃষ্টি। বেশিরভাগ মন্তব্য এমন, ‌‌‘কান্না যেন থামছেই না আমার। অনেক ভালো লেগেছে। আসলেই বাবা তুমি সাধারণ হয়েও অসাধারণ, ভালোবাসি বাবা।’

আবার কেউ বলছেন, ‘লকডাউনে থেকে বহুদিন পর বাবা-মায়ের সঙ্গে নাটকটি দেখলাম। একটা নাটক দেখতে বসে একই পরিবারের সবগুলো মানুষের চোখে জল, ভাবা যায়! ধন্যবাদ আরিয়ান ভাই, আমাদের চোখটা আরেকবার খুলে দেওয়ার জন্য।’

গেল কয়েকবছর ধরে উৎসব মানেই টিভি পর্দায় মিজানুর রহমান আরিয়ানের একাধিক চমক। লকডাউন আরোপের ঠিক আগমুহূর্তে তিনি নির্মাণ করেন সিএমভি প্রযোজিত ‘উপহার’।

মূলত এটি নির্মাণের পর ঈদ উৎসবের জন্য আর কোনও নাটক নির্মাণ করা হয়নি তার। যে নাটকটি ইউটিউবে উন্মুক্ত হওয়ার পর সংখ্যার বিষয়টি ভুলে যান এর নির্মাতা।

আরিয়ান বলেন, ‘‘আমার পরিকল্পনা ছিল ছয়টি কাজ করবো গেল ঈদে। ‘উপহার’ দিয়ে শুরু করলাম। লকডাউনের কারণে বাকি কাজগুলো আর করা হলো না। এখন মনে হচ্ছে, না করে ভালোই করেছি। ভালো কাজ একটি করাই উত্তম।’’

কিন্তু ঈদে তো সাধারণত কমেডি ঘরানার নাটক বেশি চলে। পাশাপাশি চলে রোমান্টিক। অথচ আরিয়ানের ‘উপহার’ সাজানো হয়েছে একজন অসহায় বাবা এবং ছেলে ও ছেলের বৌয়ের গল্প দিয়ে। ঈদ নাটকের মধ্যে যে নাটকটি জনপ্রিয়তা ও প্রশংসার ভোটে এখনও এগিয়ে আছে সবচেয়ে। রহস্য কী?

এর গল্পকার ও নির্মাতা আরিয়ান বলেন, ‘প্রথমত দর্শক আসলে ভাবতেই পারেনি নাটকটির শেষটা এভাবে হবে! এই ধাক্কাটা আমি দিতে চেয়েছি। এবং মনে হচ্ছে সেটা পেরেছি। পজেটিভ বিষয়, কাজটি দেখে মিডিয়ার প্রচুর মানুষ আমাকে ফোন করছেন। প্রশংসা করছেন। এটা আমার জন্য অনেক প্রশান্তির বিষয়। অন্যদিকে সোশ্যাল মিডিয়া এবং ইউটিউবের কমেন্ট বক্সে দর্শকরা যেভাবে প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন, সত্যিই আমি অভিভূত।’

আরিয়ান জানান, এ পর্যন্ত তিনি অনেক নাটক বানিয়েছেন। বেশিরভাগই জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তবে এরমধ্যে মাত্র ২/৩টি নাটক থেকে তিনি পেয়েছেন শতভাগ পজেটিভ প্রশংসা। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হলো ‌‘উপহার’। যে নাটকটির জন্য তিনি এখনো কোনও নেতিবাচক মন্তব্য পাননি।

এদিকে ‘উপহার’ প্রযোজক এসকে সাহেদ আলী পাপ্পু বলেন, গান আর নাটক, যাই হোক- মানের বিষয়ে সিএমভি বরাবরই সচেতন। মিজানুর রহমান আরিয়ানের কাজের মধ্যেও আমরা সেই প্রতিচ্ছবি পেয়েছি। আমরা একসঙ্গে বেশকটি কাজ করেছি। তারমধ্যে সেরা উপহার হয়ে থাকবে ‘উপহার’। কারণ, নাটকটি প্রতিটি দর্শকের বিবেককে নাড়া দিয়েছে। এমন কাজ আমরা আরও উপহার দিতে চাই।