চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দর্শককে পর্দায় আটকে রাখার শক্তি আছে ১১টি গল্পেই: কিবরিয়া ফারুকী

১৫ নভেম্বর দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে বহুল আলোচিত ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত বাংলাদেশের প্রথম অমনিবাস চলচ্চিত্র ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’

‘১১ জন নির্মাতার ১১টি গল্প নিয়ে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’। এই ছবিটি নিয়ে আমি যদি দর্শক হিসেবে বলি, তাহলে বলবো দর্শককে ১৩৪ মিনিট পর্দায় আটকে রাখবে এই ছবি।’

মুক্তি প্রতীক্ষিত বাংলাদেশের প্রথম অমনিবাস চলচ্চিত্র নিয়ে চ্যানেল আই অনলাইনকে এভাবেই বলছিলেন ১১ নির্মাতার একজন গোলাম কিবরিয়া ফারুকী।

বিজ্ঞাপন

প্রথমবার বড় পর্দায় ছবি মুক্তি পাচ্ছে, এ অনুভূতির কথা জানিয়ে গোলাম কিবরিয়া ফারুকী বললেন: প্রথমবার বড় পর্দায় যাওয়ার অনুভূতি অবশ্যই দারুণ। খুবই এক্সাইটেড! আবার একই সঙ্গে একটু ভয়ও লাগছে এই ভেবে যে, দর্শক ছবিটিকে কীভাবে নেয়! কারণ এরকম ধাঁচের ছবিতো এরআগে আমাদের সিনেমা হলে ওঠেনি।

তবে ছবিটি দেখতে বসলে দর্শক যে ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’র গল্পের সাথে একাত্ম হয়ে যাবেন সে কথাও বলতে ভুললেন না এই নির্মাতা। নিজেকে দর্শকের জায়গায় রেখে তিনি বললেন: দর্শক হিসেবে আমি যখন একটি সিনেমা দেখতে যাই, তখন প্রথমে ত্রিশ মিনিট দেখার এক ধরনের টার্গেট থাকে। এরপর যদি ওই সিনেমার শক্তি থাকে, তাহলে পুরো সিনেমাটা দেখি, বা দেখতে বাধ্য হই। নাহলে বের হয়ে যাই। ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’ আমাদের নিজেদের ছবি বলে বলছি না, এটা দর্শক একবার দেখতে বসলে পুরো ছবিটি না দেখে বের হবেন না! এই শক্তি ১১টি গল্পের মধ্যেই রয়েছে।

‘ইতি, তোমারই ঢাকা’ ছবিটিকে ঢাকা শহরের গল্প নিয়ে নির্মিত অমনিবাস বলা হলেও শেষ পর্যন্ত এটি পুরো বাংলাদেশের গল্প, এমনটাই মনে করেন গোলাম কিবরিয়া ফারুকী। বললেন, আমাদের সংকট, এই প্রজন্মের সংকটগুলো টুকরো টুকরো গল্পে উঠে এসেছে এই সিনেমায়। একেবারে দশ বছর থেকে শুরু করে ষাট বছরের মানুষও এই ছবির গল্পের সাথে নিজেদের রিলেট করতে পারবেন।

এক সিনেমায় প্রায় ৫০ জনের বেশী পরিচিত অভিনেতা-অভিনেত্রী কাজ করেছেন। তবুও নির্মাতা মনে করেন, শিল্পীর চেয়ে এই ছবির গল্পই মানুষের মনে বেশী দাগ কাটবে।

গেল প্রায় এক বছর ধরে বিশ্বের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শনীর পর আসছে ১৫ নভেম্বর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে চলেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত বাংলাদেশের প্রথম অমনিবাস (অ্যান্থলজি) চলচ্চিত্র ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’।

নির্মাণের শুরু থেকেই এই ছবিটি সম্পর্কে সচেতন চলচ্চিত্রপ্রেমী দর্শক। তাই ছবির ক্রিয়েটিভ প্রডিউসার আবু শাহেদ ইমন মনে করছেন, এমন নতুন ধরনের ছবির প্রচারকের ভূমিকা পালন করবেন স্বয়ং দর্শকই। কারণ বিগত দিনে যেসব ছবি হিট হয়েছে, তার সবই হয়েছে দর্শকের জন্য। তারাই আরো বেশী সংখ্যক দর্শকের কাছে ভালো ছবির খবর পৌঁছে দিয়েছেন।

‘ইতি, তোমারই ঢাকা’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন অন্তত অর্ধ শতাধিক জনপ্রিয় তারকা। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ফজলুর রহমান বাবু, নুসরাত ইমরোজ তিশা, অর্চিতা স্পর্শিয়া, অ্যালেন শুভ্র, ইরেশ যাকের, মোস্তফা মনোয়ার, মনোজ প্রামাণিক, ইন্তেখাব দিনার, শতাব্দী ওয়াদুদ, ইয়াশ রোহান, রওনক হাসান, শেহতাজসহ আরও অনেককে।

ছবিগুলো নির্মাণ করেছেন গোলাম কিবরিয়া ফারুকী, কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়, নুহাশ হ‌ুমায়ূন, মাহমুদুল ইসলাম, মীর মোকাররম হোসেন, রাহাত রহমান, রবিউল আলম, সালেহ সোবহান, সৈয়দ আহমেদ, তামিম নূর ও তানভীর আহসান।

Bellow Post-Green View