চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তুহিন হত্যার প্রতিবাদে জাবিতে মানববন্ধন

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে পাঁচ বছরের শিশু তুহিনকে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে ভাস্কর্যের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা। তারা বলেন, সকল হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠ বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি বাস্তবায়ন হলে এসব ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতো না।

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের জাবি সংসদের সদস্য রাকিবুল রনি বলেন, ‘দেশের বিচারহীনতার সংস্কৃতি খুনিদের বারবার উৎসাহী করছে। এই সমাজ, শিক্ষা ব্যবস্থা, সরকার একের পর এক খুনি তৈরি করে যাচ্ছে। গত পাঁচ বছরে যতগুলো খুন-ধর্ষণ হয়েছে তার দায় এই সরকারকে নিতে হবে। দেশের মানুষ যখন হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে দাঁড়াবে এবং নিজে অপরাধমূলক কাজ থেকে বিরত থাকবে তখনই এসব খুন, ধর্ষণ বন্ধ করা সম্ভব হবে।’

মানববন্ধনে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাংগঠনিক সম্পাদক শোভন রহমান বলেন, ‘যে সমাজ খুনি-ধর্ষক তৈরি করে, আমরা সেই সমাজের পরিবর্তন চাই। আমরা দেখেছি বুয়েটে আবরারকে যারা হত্যা করেছে তারা স্বীকার করেছে এই সমাজ তাদেরকে খুনি বানিয়েছে। তাই আমরা এসব খুনিদের বিচার চাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সমাজ পরিবর্তন করতে চাই। যাতে নতুন করে আর কোনো খুনি তৈরি না হয়।’

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন শিশির বলেন, ‘হত্যা, ধর্ষণ আর দুর্নীতি এখন টক অফ দ্যা কান্ট্রি হয়ে দাঁড়িয়েছে। স্বাধীন বাংলাদেশ কি খুনি তৈরি করার জন্য? আমরা বরাবরই দেখি খুনিরা খুন করে উল্লাস করছে।’

তিনি বলেন, ‘জোবায়ের, রাজনসহ সকল হত্যাকাণ্ডের যদি ঠিকমতো বিচার হতো তাহলে আজকে আমাদেরকে আবরার আর তুহিনকে হারাতে হতো না। ফাঁসির আসামিকে মুক্ত করে দেশের বাইরে পুনর্বাসনের সুযোগ দেয়া হয়। প্রতিনিয়তই যদি এসব চলতে থাকে তাহলে সমাজের পরিবর্তন আসবে না।’

বিজ্ঞাপন