চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তুরস্ক ও মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাজারে সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে তুরস্ক ও মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বুধবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে পেঁয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুদ, সরবরাহ ও মূল্য পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

Reneta June

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে এখনও ৬ লাখ টন পেয়াজ মজুদ আছে, আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। তবুও মিয়ানমার এবং তুরস্ক থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হবে।

বিজ্ঞাপন

এসব পেঁয়াজ আমদানি করা হবে সরকারি বিপণন সংস্থা টিসিবির মাধ্যমে। টিসিবির পাশাপাশি ই-কমার্সের মাধ্যমেও কম দামে আমদানি করা এই পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, এখনই পেঁয়াজের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পেঁয়াজের দাম বাড়াচ্ছে।

ভোক্তাদের সংযমী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে টিপু বলেন, মানুষ অস্থির হয়ে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পেঁয়াজ কিনছে, এতে বাজারে প্রভাব পড়ছে। ফলে দাম বেড়েছে।

বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করেছে ভারত। ফলে গত সোমবার থেকে পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে না। এমন খবরে হু হু করে দেশের বাজারে বাড়ছে মসলাজাতীয় এই পণ্যটির দাম। মাত্র একদিনেই এই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যটির দাম প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে এখন প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১১০ টাকায়।