চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তিন ভাই হত্যায় হাইকোর্টে খালাস পাওয়া ৮ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

দেড় যুগ আগে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে তিন ভাইকে হত্যার চাঞ্চল্যকর মামলায় হাইকোর্টের খালাস দেয়া আট আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

বিচারিক আদালতে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৫ জন ও যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তদের দেয়া হাইকোর্টের খালাস আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের শুনানি নিয়ে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির ভার্চুয়াল বেঞ্চ মঙ্গলবার রায় দেন। সর্বোচ্চ আদালতের এই রায়ে বিচারিক আদালতে মৃত্যুদণ্ডের পর হাইকোর্টে খালাস পাওয়া যে পাঁচ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয় তারা হলেন- মোবারক, ওসমান, মাইনুদ্দিন, ইমানউদ্দিন ও লোকমান। এছাড়া বিচারিক আদালতে যাবজ্জীবন পাওয়া যে তিন জনের সাজা আজ বহাল রাখা হয় তারা হলেন- জামাল ওরফে ক্যারাটি জামাল, আবুল কালাম ও আবু রাশেদ।

বিজ্ঞাপন

আজ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। আসামিদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ কে এম ফজলুল হক খান ফরিদ, এ কে এম ফয়েজ, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, আশরাফ উজ জামান খান ও শিরিন আফরোজ।

এই মামলার বিবরণে জানা যায়, চট্টগ্রামের হাটাহাজারীতে ২০০৩ সালের ২৬  মে প্রকাশ্য দিবালোকে আবুল কাশেম, আবুল বশর ও বাদশা আলম নামে ৩ সহোদরকে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ভাই কাজী মফজল মাস্টার ২২ জনকে আসামি করে পরে হাটহাজারী থানায় মামলা করেন। এই মামলায় বিচারিক আদালত ৫ জনকে মত্যৃদণ্ড এবং আটজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। এই রায়ের বিরুদ্ধে করা আপিলের শুনানি নিয়ে হাইকোর্টে সব আসামিকেই খালাস দিয়ে দেন। হাইকোর্টের সে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ। সে আপিলের শুনানি নিয়েই আজ রায় দেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

বিজ্ঞাপন