চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তারাহীন ফোকফেস্ট, যে মুখগুলোকে খুঁজবে দর্শক

২০১৫ সাল থেকে রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে শুরু হয় ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব’। লোকসংগীত নিয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বিশাল পরিসরে এবং এমন উৎসব মুখর পরিবেশে সংগীত অনুষ্ঠান লক্ষ্য করা গেলেও উপমহাদেশে এমন আয়োজন বিরল। তাই প্রথম আসর থেকেই উৎসবটির সঙ্গে বাঙালি শ্রোতা দর্শকরা নাড়ির টানেই জমজমাট করে তুলেছেন। দেশ-বিদেশের নামিদামি শিল্পীদের পরিবেশনায় গেল দুইবারই দর্শক প্রাণ ভরে উপভোগ করেছেন। কিন্তু এবার হয়েছে কিছুটা বিপত্তি।

প্রথমবার আয়োজনের পর ২০১৬ সালে ‘ঢাকা ইন্টারনেশনাল ফোকফেস্ট’ নিয়েও মানুষের ছিল ব্যাপক আগ্রহ। আসছে নভেম্বরে শুরু হচ্ছে ফোকফেস্টের তৃতীয় আসর। এবারও এই আয়োজনকে ঘিরে দর্শক শ্রোতার আগ্রহের কমতি নেই। কিন্তু সংগীত পরিবেশনার যে লাইন-আপ আয়োজকরা প্রকাশ করেছেন তাতে যেনো মন ভরছে না সাধারণ দর্শকের। কারণ এরমধ্যে নেই গত আসর দুটির বেশকিছু সাড়া জাগানো দেশি-বিদেশি ফোক শিল্পী, যারা অল্প সময়েই দর্শক শ্রোতার মনে জায়গা করে নিয়েছিল। কিন্তু দুঃসংবাদ হচ্ছে, চলতি আসরে তাদের বেশীর ভাগই এবারে আসরে থাকছেন না।

বিজ্ঞাপন

গেল দুইবারের আয়োজনে দেখা গেছে মমতাজ, অর্ণব এন্ড ফ্রেন্ডস, বারী সিদ্দিকী, জলের গান, কুদ্দুস বয়াতি, শফি মন্ডল, পবন দাস বাউল, অর্ক মুখার্জী, কৈলাস খের, ইন্ডিয়ান ওশান, আবিদা পারভীনের মতো তারকা শিল্পীদের। যাদের টানে অসংখ্য মানুষ শীতকে উপেক্ষা করেও ছুটে এসেছেন রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে। এবারও শীত আসছে, বিশাল পরিসরে আর্মি স্টেডিয়ামেই বসছে সংগীতের এই বৃহৎ আসর, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে গাইতে শিল্পীরাও আসছেন কিন্তু থাকবেন না গত আসর মাতানো মমতাজ, পবন দাস, জলের গান কিংবা অর্ক মুখার্জীর মতো শিল্পীরা। বারী সিদ্দিকীর মন মুগ্ধ করে দেয়া বাঁশির সুর শোনা যাবে না এবার।

ফোকসংগীতের এই উৎসবে কেন নেই তারা?-এমন প্রশ্ন এখন সবার মনে। সংবাদ সম্মেলনেও উপস্থিত সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের মুখোমুখি হন আয়োজকরা। উত্তরে আয়োজক পক্ষ থেকে বলা হয়, নতুনদের জায়গা করে দিতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

নতুনদের জায়গা দিতেই পুরনো ফোকশিল্পীরা এবার আসছেন না, আয়োজকদের এমন যুক্তি ফোকফেস্টের দর্শক শ্রোতারা কতোটা নিবেন সেটা সময়ই বলে দিবে। তবে আর্মি স্টেডিয়ামের ফোকফেস্ট মঞ্চে যে পবন দাস বাউল, অর্ক মুখার্জী কিংবা অর্ণব এন্ড ফ্রেন্ডসদের সঙ্গে দর্শকদের যে স্মৃতির মিনার তৈরি হয়েছে, সেইসব স্মৃতি যে হাতড়িয়ে বেড়াবেন দর্শক সেটা অবলীলায় বলে দেয়া যায়।

৯ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ‘ঢাকা ফোকফেস্ট’-এর তৃতীয় আসর। চলবে ১১ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুরু হয়ে রাত দেড়টা পর্যন্ত রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে মাতবে ফোকসংগীতের এই উৎসব। এরইমধ্যে তিন দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানে কারা কারা পারফর্ম করবেন তাদের নামও প্রকাশ করেছেন আয়োজকরা। যেখানে বলা হয়েছে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, ব্রাজিল, মালী, অস্ট্রেলিয়া, ফ্রান্স ও জাপান থেকে প্রায় ১৪০ জন লোকসংগীত শিল্পী অংশ গ্রহন করবেন। উল্লেখযোগ্যদের মধ্যে এবার উৎসব মাতাবেন বাংলাদেশের শাহজাহান মুন্সি, আরিফ দেওয়ান, ফকির শাহাবুদ্দিন, শাহনাজ বেলী, শাহ আলম সরকার আলেয়া বেগম, বাউলা ও বাউলিয়ানা। ভারত থেকে পাপন, নুরান সিস্টার্স ও বাসুদেব বাউল। মালী’র বিশ্বখ্যাত গ্র‌্যামি বিজয়ী তিনারিওয়েন ব্যান্ড, পাকিস্তান থেকে মিকাল হাসান ব্যান্ড, নেপাল থেকে কুটুম্বা, তিব্বতের ফোক শিল্পী তেনজিন চো’য়েগাল, ইরান থেকে রাস্তাক, ব্রাজিল থেকে মোরিসিও টিযুমবাসহ আরো অনেক শেকড় সন্ধানী ফোক শিল্পীরা।