চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তামিমের সেঞ্চুরি আটকে দিলো বৃষ্টি

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা প্রথম টেস্ট ড্র

প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরির আশা জাগিয়ে আউট হয়েছিলেন ৯০ রানে। দ্বিতীয় সুযোগে দারুণ ব্যাটিংয়ে এগিয়ে যাচ্ছিলেন তিন অঙ্কের পথে। তবে এবার বাধা হয়ে এলো বেরসিক বৃষ্টি। ৭৪ রানে অপরাজিত থেকে টাইগার ওপেনারকে ছাড়তে হলো মাঠ।

মুষলধারে বৃষ্টি ঝরে ক্যান্ডির পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। চা বিরতির পর আর শুরু করা সম্ভব হয়নি পঞ্চম দিনের শেষ সেশনের খেলা। বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা প্রথম টেস্ট ম্যাচটি ড্র হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ: ৫৪১/৭ (ইনিংস ঘোষণা) ও ১০০/২, শ্রীলঙ্কা: ৬৪৮/৮ (ইনিংস ঘোষণা)

বৃষ্টি শুরুর আগে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ তুলেছে ২ উইকেটে ১০০ রান। দুর্দান্ত খেলতে থাকা তামিমের সঙ্গে মুমিনুল হক অপরাজিত আছেন ২৩ রানে। টাইগার অধিনায়ক খেলেছেন ৮৬ বল। এ বাঁহাতির ইনিংসে নেউ কোনো বাউন্ডারি।

১০৭ রানের লিড নিয়ে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে শ্রীলঙ্কা। পঞ্চম ও শেষ দিনের লাঞ্চ বিরতির পর ব্যাটিং শুরু করে বাংলাদেশ। শুরুতেই সাইফ হাসান (১) ও নাজমুল হোসেন শান্ত (০) সাজঘরে ফিরলেও একাই লড়াই চালিয়ে যান তামিম।

বিজ্ঞাপন

ওয়ান ম্যান শো দেখান পাল্লেকেলের ২২ গজে। বাউন্ডারির মেলায় মাতিয়ে রাখেন স্টেডিয়াম। ৫৩ বলে ১০টি চারের সাহাজ্যে তুলে নেন ফিফটি। পরের ২৪ রান যোগ করেন তিনটি ছয়ের সাহাজ্যে। শেষদিকে অবশ্য ড্রয়ের মিশনে ধৈর্য্য নিয়ে ব্যাট করেছেন বাংলাদেশ ওপেনার।

৯৮ বল খেলে ৭৪ রানে অপরাজিত থাকা অবস্থায় বৃষ্টিতে সেঞ্চুরির সুযোগ হাতছাড়া হয় তামিমের। লঙ্কান পেসার সুরঙ্গা লাকমল নিয়েছেন দুটি উইকেট।

এর আগে শ্রীলঙ্কা৮ উইকেটে ৬৪৮ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে। স্বাগতিকরা প্রথম ইনিংসে লিড পায় ১০৭ রানের।

সকালেই বাংলাদেশ দলকে প্রথম সাফল্য এনে দেন তাসকিন আহমেদ। খানিক বিরতি দিয়ে পান আরেক উইকেট। সাজঘরে পাঠান দিমুথ করুনারত্নে ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। ভাঙেন তাদের মধ্যে গড়ে ওঠা ৩৪৫ রানের অসাধারণ জুটি।

২৯১ বলে ২২ চারে ১৬৬ রানে আউট হন ধনাঞ্জয়া। ৪৩৭ বল খেলে ২৪৪ রানে থামেন করুনারত্নে।

চতুর্থ উইকেটে রেকর্ড জুটির সুবাদে আগের দিনই বাংলাদেশকে প্রায় ছুঁয়ে ফেলে শ্রীলঙ্কা। আলোর স্বল্পতায় দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে স্বাগতিকরা তোলে ৩ উইকেটে ৫১২ রান। শেষদিনে ৫ উইকেট খরচায় আরও ১৩৬ রান যোগ করে ইনিংস ঘোষণা করে লঙ্কানরা।

বিজ্ঞাপন