চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঢাবি’র চাকরি হারালেন সেই শিক্ষক

'বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি'

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবমাননা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খানকে চাকরি থেকে স্থায়ী অব্যাহতি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বুধবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

মোর্শেদ হাসান ঢাবি বিএনপি-জামায়াতপন্থি শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক।

২০১৮ সালের ২৬ মার্চ একটি জাতীয় দৈনিকের স্বাধীনতা দিবস সংখ্যায় অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খান ‘জ্যোতির্ময় জিয়া’ শিরোনামে একটি নিবন্ধ লেখেন।

বিজ্ঞাপন

ওই প্রবন্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবমাননা এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে।

এমন অভিযোগের পর ওই বছরের ২ এপ্রিল তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ও প্রশাসনিক সকল কার্যক্রম থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দেয়া হয়। পাশাপাশি উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ওই কমিটির প্রতিবেদনে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। মোর্শেদ হাসান খানের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া যায়, তা নিয়ে আইনি সুপারিশের জন্য ২০১৯ সালের ৩০ এপ্রিল ঢাবি সিন্ডিকেট সদস্য হিসেবে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

পরে অ্যাটর্নি জেনারেল ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ করে। কিন্তু দীর্ঘদিন তা বাস্তবায়ন হয়নি।

আজকের সিন্ডিকেট সভায় সেই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হয়।