চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ডেঙ্গুর প্রকোপ বন্ধে পদক্ষেপ কী?

রাজধানীতে ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এমনকি আক্রান্তের দিক থেকে গত ছয় বছরের মধ্যে এবারের অবস্থান সর্বোচ্চ। তাই ডেঙ্গু এখন রাজধানীর মানুষের কাছে আতঙ্কের বিষয় হয়ে উঠেছে।

চ্যানেল আই অনলাইনের প্রতিবেদনে জানা যায়, এপ্রিল থেকে অক্টোবর পর্যন্ত ডেঙ্গুর সিজন হলেও সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়ে থাকে মে থেকে আগস্ট পর্যন্ত। ডেঙ্গুর চার ধরনের মধ্যে সবচেয়ে মারাত্মক সেরোটাইপ-৩-এ অনেকে আক্রান্ত হচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনে বলা হয়, এবার ডেঙ্গু জ্বরের যে চেনা লক্ষণ তার পরিবর্তন ঘটেছে। দ্রুত প্লাটিলেট কমে যাওয়া এবং কিডনি, ফুসফুস, লিভারসহ অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে সংক্রমণ হওয়ায় অনেক রোগীর অবস্থা সংকটাপন্ন হচ্ছে। এমনকি জ্বর কমে যাওয়ার পরও হুট করে প্লাটিলেট কমছে কারও কারও।

গত বুধবার ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে স্কয়ার হাসপাতালে ডা. নিগার নাহিদ দিপু নামে এক নারী চিকিৎসক মারা গেছেন। এর আগে দুই শিশু মারা গেছে ডেঙ্গুতে। এমনকি অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বাজেট ঘোষণার কয়েক দিন আগে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন বলে তিনি নিজে জানিয়েছেন। এ কারণে তিনি বাজেট বক্তৃতা সম্পন্ন করতে পারেননি। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে অর্থমন্ত্রীর পক্ষে বাজেট বক্তব্য উপস্থাপন পড়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ টাঙ্গাইল-৮ (সখীপুর-বাসাইল) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জোয়াহেরুল ইসলাম ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে।

তবে সাধারণ মানুষের অনেকেরই এ জাতীয় রোগে উন্নত চিকিৎসার সামর্থ্য নেই। এ কারণে স্বাভাবিকভাবেই রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গু রোগীদের চাপ সামলাতে কর্তৃপক্ষকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণসহ হাসপাতালগুলোতে যাবতীয় সুযোগ-সুবিধার ব্যবস্থা করতে হবে।

ডেঙ্গু জ্বরের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় করণীয় সম্পর্কে ইতোমধ্যে নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এ বিষয়ে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে বলেই আমরা মনে করি। একইসঙ্গে সিটি কর্পোরেশনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোকে এ বিষয়ে আরও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। বিশেষ করে এডিস মশার প্রজননস্থল জমে থাকা পানি সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। এছাড়া এডিস মশা নিধনে সিটি কর্পোরেশনের কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ জরুরি।

ডেঙ্গুর প্রকোপের বিষয়টিকে সর্বোচ্চ গুরুত্বের সঙ্গে আমলে নিয়ে এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ করতে আমরা সংশ্লিষ্টদের আহ্বান জানাচ্ছি।