চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আত্মঘাতী হতে পারে: টিআইবি

সম্প্রতি পাশ হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন দীর্ঘ মেয়াদে আত্মঘাতী হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ’র (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান।

বুধবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) এক মানববন্ধনে এ মন্তব্য করেন তিনি। ‘আন্তর্জাতিক তথ্য জানার অধিকার দিবস’ উপলক্ষে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে টিআইবি।

ইফতেখারুজ্জামান বলেন, এ আইন অত্যন্ত উদ্বেগজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। এটি শুধু মত প্রকাশের স্বাধীনতা নয়, গণমাধ্যমকর্মী এবং যারা সরকারের বিভিন্ন কার্যক্রমের ওপর গবেষণা করে, তাদের জন্যও বড় প্রতিবন্ধকতা। সাময়িক বিবেচনায় হয়তো এটি সন্তোষজনক বলে মনে হতে পারে, কিন্তু দীর্ঘ মেয়াদে এটি আত্মঘাতী হতে বাধ্য।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, আপনারা জানেন ৩২ ধারা একটি রয়েছে; যেখানে ঔপনেবিশিক সময়ের দুটো অফিসিয়াল নিরাপত্তা আইন পুনরায় স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। এটিকে আমরা খুবই পশ্চাৎমুখী বলে মনে করি।

টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক বলেন, যারা স্বাধীন সাংবাদিকতা ও অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা করতে চায়, তাদের জন্য বড় ধরনের হুমকির সৃষ্টি হয়েছে এই আইনের মাধ্যমে। যেটিকে এক ধরনের নিরাপত্তাহীনতা বলা যায়।

এসময় তিনি আইনটির সংশোধন চেয়ে বলেন, রাষ্ট্রপতির কাছে ইতোমধ্যে আমাদের দাবির কথা জানিয়েছি বিভিন্ন মাধ্যমে। আশা করবো তিনি আইনটি অনুমোদন না দিয়ে সংসদে আবার ফেরত পাঠাবেন। যাতে করে এটি পুনরায় বিবেচিত হতে পারে। সংশ্লিষ্ট অংশীজন যারা আছেন তাদের মাধ্যমে আইনটি পুনরায় সংশোধন করা যেতে পারে।

মানববন্ধনে টিআইবির আউটরিচ অ্যান্ড কমিউনিকেশন পরিচালক শেখ মনজুর এ আলম, প্রশাসনিক পরিচালক আবদুল আহাদ এবং বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন