চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টেস্টকে আরও জনপ্রিয় করবে ইংল্যান্ড, বলছেন ম্যাককালাম

‘আমার কাছে মনে হয় টেস্ট ক্রিকেট জনপ্রিয়তার দিক থেকে নিম্নমুখী প্রবণতায় রয়েছে। আমি যদিও ভাগ্যবান, ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট ও সাদা বলের ক্রিকেটে কোচিং ক্যারিয়ার গড়তে পেরেছি। টেস্ট ক্রিকেটই আমার প্রকৃত ভালোবাসা। যদি কেউ টেস্টকে পুনরুজ্জীবিত এবং আবারও জনপ্রিয় করতে পারে, সেটি হবে ইংল্যান্ড।’

ইংল্যান্ড টেস্ট দলের কোচের দায়িত্ব নিয়ে প্রথমবার কথা বলেছেন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, নতুন অধ্যায়ে লক্ষ্যের কথা এভাবেই জানান কিউইদের সাবেক অধিনায়ক।

Reneta June

সাদা বলের ক্রিকেটে কোচিং করানোর অভিজ্ঞতা থাকলেও ইংলিশদের ক্ষেত্রে ম্যাককালাম সেই সুযোগ গ্রহণ করেননি। লাল বলের দায়িত্ব নেয়ার কারণ হিসেবে নিজের দৃষ্টিভঙ্গির কথাও করলেন খোলাসা।

বিজ্ঞাপন

‘আমি দুটি দায়িত্ব নিয়েই পর্যবেক্ষণ করছিলাম। সাদা বলের ক্রিকেট আমাকে তেমন আগ্রহী করেনি। কারণ এখানে ইংল্যান্ড দুর্দান্ত অবস্থায় আছে। বিশ্বের সেরা দলগুলোর মধ্যে তারা একটি। অধিনায়ক হিসেবে ইয়ন মরগানকে পেয়েছে। সে আমার ভালো বন্ধু। জানি সে দলে এমন একটি কাঠামো তৈরি করেছে যার ধারাবাহিকতায় ভালো ফিনিশিং দিতে পারবে।’

ওয়ানডে সুপার লিগে বাংলাদেশের পর পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ইংল্যান্ড। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে তাদের র‍্যাঙ্কিং দুই। টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটেও থ্রি লায়ন্সরা দুইয়ে আছে।

টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে অবস্থা তেমন সুবিধাজনক জায়গায় নেই, আছে ছয়ে। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ২০২১-২০২৩ চক্রে ১০ দলের মধ্যে অবস্থান সবার নিচে। ১২ ম্যাচে জয় কেবল একটি, ড্র চারটি ও হার সাত ম্যাচে। পয়েন্ট ১৮ ও জয়ের শতকরা হার ১২.৫০। এমন অবস্থান থেকে ইংল্যান্ডকে টেনে তোলার চ্যালেঞ্জ নেয়ার কথাই জানালেন ম্যাককালাম।

‘যদি কোনোকিছুর জন্য জীবনে পরিবর্তন আনতে চান, সেটা কিছুটা অস্বস্তিকর হবে। একটি দলকে নিচে থেকে টেনে তোলার চেষ্টা করা চ্যালেঞ্জিং হবে। দীর্ঘ মেয়াদে এমনকিছু করতে হবে যা টেকসই এবং সফল হয়। এটাতে চ্যালেঞ্জ আরও বেশি।’

‘যদি আকর্ষণীয় ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলে সবার উপরে থাকতে পারেন, মুখে হাসি নিয়ে খেলতে পারেন, বিনোদন দেয়ার চেষ্টা করতে পারেন, তাতে টেস্ট ক্রিকেটের একটি সম্ভাবনা রয়েছে। যদি তারা মনে করে আমি সঠিক ব্যক্তি, তাহলে আমাকে সুযোগ দিতে হবে।’

সম্প্রতি জো রুটের পরিবর্তে ইংল্যান্ডের সাদা পোশাকের অধিনায়ক করা হয়েছে বেন স্টোকসকে। ৩০ বর্ষী অলরাউন্ডারের খেলার ধরনের প্রশংসাই করেছেন নতুন কোচ। তার আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের সঙ্গে নিজের ব্যাট করার ধরনেও মিল পেয়েছেন ম্যাককালাম।

‘যেভাবে খেলতাম এবং কোচিংকে যেভাবে ভালোবাসি, বেন স্টোকস সেভাবেই খেলেন। স্বাধীনচেতা হয়ে এবং প্রতিপক্ষের উপর চাপ সৃষ্টি করে খেলার ধরনে আমার সঙ্গে মিল রয়েছে।’