চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টেলিভিশন থেকে এসে বলিউডে সফল যারা

ছোট পর্দায় অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু করলেও অনেকের টার্গেট থাকে বড় পর্দা। কেউ সফল হন, কেউ হন না। বলিউডে রাজ করছেন এমন অনেক তারকা যারা টেলিভিশনে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। টেলভিশন থেকে এসে বলিউডে সফল হওয়া এমন ছয় তারকার কথা থাকলো এখানে:

শাহরুখ খান
শাহরুখ খানের টেলিভিশন ক্যরিয়ার সম্পর্কে কমবেশি সবারই জানা। মূলত ১৯৮৮-৮৯ সালের দিকে টেলিভিশনে তাঁর অভিনীত ‘ফৌজি’ ও ‘সার্কাস’ ধারাবাহিকগুলো তার জন্য বলিউডের পথ খুলে দেয়। যদিও তিনি নাকি শুরুর দিকে চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চান নি। ব্যক্তিগত হতাশা থেকে পালিয়ে বাঁচার জন্য চলচ্চিত্রে টুকিটাকি কিছু কাজ করতে চেয়েছিলেন মাত্র। কিন্তু আজ তিনিই বলিউডের ‘কিং খান’ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

বিদ্যা বালান
টেলিভিশনে বেশ কিছু বিজ্ঞাপনচিত্র ও মিউজিক ভিডিওতে কাজের মধ্য দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেন বিদ্যা। এরপর ১৯৯৫ সালের দিকে ‘হাম পাঁচ’ নামক একটি কমেডি ধারাবাহিকে অভিনয় শুরু করেন। দীর্ঘদিন টেলিভিশনে কাজ করার পর ২০০৩ সালে বাংলা চলচ্চিত্র ‘ভালো থেকো’ ছবির মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে প্রবেশ করেন। বলিউডে তাঁর প্রথম ছবি ‘পরিণীতা’। ছবিতে অসাধারণ অভিনয় করে আলোচনায় আসেন বিদ্যা। এরপর ‘কাহানী’, ‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’, ‘ডার্টি পিকচার’ এর মতো ব্যবসাসফল ছবিতে অভিনয় করে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছে যান।

বিজ্ঞাপন

আয়ুষ্মান খুরানা
ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে টেলিভিশনে ভিডিও জকি হিসেবে কাজ করতেন। এছাড়া বিভিন্ন টেলিভিশন অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করতেন। সাবলীল অভিনয় ও সংগীত প্রতিভা তাঁকে সহজেই বলিউডে সুযোগ করে দেয়। প্রথম ছবিতে অভিনয় করে আলোচনায় চলে আসেন আয়ুষ্মান। সেই সাথে ফিল্মফেয়ার জিতে নেন সেরা নবাগত অভিনেতা ও কণ্ঠশিল্পীর পুরস্কার। এর পর থামেনি বলিউডে আয়ুষ্মানের পথচলা। দর্শকদের একের পর এক সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়ে এই অভিনেতা নিজের নামের সাথে ‘হিট মেশিন’ তকমা জুড়ে নিয়েছেন।

আদিত্য রায় কাপুর
একজন ভিডিও জকি হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন ‘আশিকি ২’ খ্যাত তারকা আদিত্য রায় কাপুর। তরুণ প্রজন্মের কাছেও বেশ জনপ্রিয় তিনি। পরবর্তীতে তাঁর আকর্ষণীয় শারীরিক ভাষা ও স্নিগ্ধ হাসি তাঁকে বলিউডের দরজা খুলে দেয়। প্রথম ছবি ‘আশিকি ২’ তে মদ্যপ হতাশাগ্রস্থ প্রেমিকের চরিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় তাঁকে রাতারাতি তারকাখ্যাতি এনে দেয়।

সুশান্ত সিং রাজপুত
‘পবিত্র রিস্তা’ নামক একটি টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করে আকাশচুম্বী সফলতা পেয়েছিলেন এই তারকা। টেলিভিশনে এত জনপ্রিয়তা সত্ত্বেও বলিউডেকে তিনি এক প্রকার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন। ২০১৩ সালে তাঁর প্রথম ছবি ‘কোয়ি পো চে’ তে অভিনয় করে প্রশংসিত হন। এরপর ‘শুদ্ধ দেশী রোমান্স’, ‘ডিটেকটিভ ব্যোমকেশ বক্সি’ ছবিতেও তাঁর অভিনয় প্রশংসিত হয়। ২০১৬ সালে ‘এমএস ধনি: দ্য আনন্টোল্ড স্টোরি’ ছবিতে অভিনয় করে মানুষের খুব কাছাকাছি পৌঁছে যান সুশান্ত।

ইয়ামি গৌতম
‘ফেয়ার এন্ড লাভলি’র টিভি বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রথমবার পর্দার সামনে এসেছিলেন ইয়ামি গৌতম। তবে বলিউডে তার অভিষেক হয় আয়ুষ্মানের বিপরীতে ‘ভিকি ডোনার’ সিনেমার মধ্য দিয়ে। সিনেমাটিতে ইয়ামির অভিনয়ের প্রসংশা করেন দর্শকরা। এরপর আরো বেশ কিছু সিনেমাতে দেখা গেছে এই অভিনেত্রীকে।