চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টুঙ্গিপাড়া থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন শেখ হাসিনা

১২ ডিসেম্বর (বুধবার) থেকে আওয়ামী লীগের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু হবে বলে জানিয়েছেন দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

তিনি বলেছেন: ওই দিন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত করার পর তার নির্বাচনী এলাকা কোটালী পাড়ায় ভাষণ দেয়ার মাধ্যমে প্রচারণার কাজ শুরু করবেন।

সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এসময় তিনি এসব কথা বলেন।

Advertisement

বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে সংঘাত ও দলীয় কার্যালয় ভাঙচুরের বিষয়ে নানক বলেন: বিএনপির মনোনয়ন বাণিজ্যকে কেন্দ্র করে দলীয় কর্যালয় ভাঙচুরে প্রমাণ করে তারা অগণতান্ত্রিক পন্থা ও নিয়মবর্হিভূত ভাবে মনোনয়ন বাণিজ্য চালিয়েছে। দেশবাসী জানতে চায় বিএনপির মনোনয়ন বাণিজ্যের কত টাকা বিদেশে পাচার করেছে। শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন বাণিজ্যের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

তিনি বলেন: আওয়ামী লীগে কোনো বিদ্রোহী প্রার্থী নেই। অনেকেই নৌকার মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। মনোনয়ন না পেয়ে তারা প্রত্যহার করে নিয়েছে।

আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন: জনগণ বিএনপি-জামায়াতের দুর্নীতি-দুশাসন ও আগুন সন্ত্রাসকে দেখতে চায় না। এবার নির্বাচনে দেশবাসী জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক তারেক রহমানদের বিরুদ্ধে রায় দিবে। দেশের জনগণ মুক্তিযুদ্ধ ও দেশ বিরোধীদের আর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় দেখতে চায় না। দেশের মানুষ সরকারের উন্নয়ন ও অর্জনের কথা বিবেচনা করে পুনরায় আওয়ামী লীগ ও মহাজোটের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের আরেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক , বিএম মোজাম্মেল হক, আহমদ হোসেন, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এড. আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যরিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ অনেকে।