চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টি-শার্ট পুড়িয়ে চীনের বিনিয়োগকৃত ভারতীয় সংস্থার কর্মীদের প্রতিবাদ

লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় সেনাদের আত্মত্যাগের পাশে দাঁড়াতে ও চীনা আগ্রাসনের প্রতিবাদে আলিবাবার বিনিয়োগকৃত সংস্থা জ্যোমাটোর কর্মীরা নিজেদের টি-শার্ট পুড়িয়েছেন। রোববার কলকাতায় জ্যোমাটোর একদল কর্মী নিজেদের টি-শার্ট ছিঁড়ে পুড়িয়ে এই প্রতিবাদে যোগ দেন। গত কয়েকদিন আগে দুই দেশের সীমান্ত সংঘর্ষে লাদাখে চীনা সৈন্যদের আক্রমণে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হন এবং ৭৬ জন আহত হন। এ [...]

লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় সেনাদের আত্মত্যাগের পাশে দাঁড়াতে ও চীনা আগ্রাসনের প্রতিবাদে আলিবাবার বিনিয়োগকৃত সংস্থা জ্যোমাটোর কর্মীরা নিজেদের টি-শার্ট পুড়িয়েছেন।

রোববার কলকাতায় জ্যোমাটোর একদল কর্মী নিজেদের টি-শার্ট ছিঁড়ে পুড়িয়ে এই প্রতিবাদে যোগ দেন।

গত কয়েকদিন আগে দুই দেশের সীমান্ত সংঘর্ষে লাদাখে চীনা সৈন্যদের আক্রমণে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হন এবং ৭৬ জন আহত হন। এ নিয়ে দুদেশের কূটনীতিক সম্পর্ক এখন চরমে।

টি-শার্ট পুড়িয়ে কয়েকজন প্রতিবাদী দাবী করেছেন, জ্যোমাটাতে সদ্য চীনা বিনিয়োগ হয়েছে। সেই প্রতিবাদে আমরা চাকরি থেকে ইস্তফাও দিয়েছি। আপনারাও এই সংস্থা থেকে খাবার নেওয়া বন্ধ করুন।

তাদের দাবি, আমাদের থেকে লাভ করে, আমাদের জওয়ানদের মারছে চীন। আমাদের ভূখণ্ড ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। এরকম চলতে পারে না।

বিজ্ঞাপন

আরও এক প্রতিবাদীর দাবি, আমরা না খেয়ে মরব, কিন্তু চীনা বিনিয়োগ আছে এমন সংস্থায় কাজ করবো না।

এনডিটিভি বলছে, ২০১৮ সালে ২১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এই সংস্থায় বিনিয়োগ করেছে আলিবাবা। কিনে নেয় প্রায় ১৪.৭ শতাংশ শেয়ার। সম্প্রতি আরও ১৫০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ হয়েছে এই সংস্থায়।

সম্প্রতি আর্থিক মন্দার হাত থেকে বাঁচতে কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হেঁটেছে জ্যোমাটো। তার মধ্যে এই প্রতিবাদে খানিকটা অস্বস্তিতে সংস্থার কর্তারা।

আজ চীনা আগ্রাসনের কড়া জবাব দিয়েছে ভারত। গালাওয়ান উপত্যকায় যদি এখনো চীন কোনো অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করে তবে তার যোগ্য জবাব দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভারত।

ভারতের দাবি, পূর্ব লাদাখে চীনা সেনার দাপাদাপি বন্ধ করুক চীন। গালওয়ান উপত্যকার উপর চীনের সার্বভৌমত্বের দাবি মোটেই যুক্তিযুক্ত নয়।

শেয়ার করুন: