চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের সংবাদ ভুল

করোনাভাইরাসের কারণে পিছিয়ে যেতে পারে ২০২০ টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ, গত সপ্তাহে এমন সংবাদ প্রকাশ করেছিল ভারতের একটি সংবাদমাধ্যম। সেটিকে ভুল দাবি করে আইসিসির পক্ষে জানানো হয়েছে, অস্ট্রেলিয়ায় আয়োজনের অপেক্ষায় থাকা আসরটি পেছানোর মতো এখনো কোনো সিদ্ধান্ত বা পরিস্থিতি তৈরি হয়নি!

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মঙ্গলবার থেকে শুরু তিনদিনের আইসিসি বোর্ড সভার প্রথমদিন বরাদ্দ ছিল সভাপতি নির্বাচনের বিষয়বস্তুতে সীমাবদ্ধ। দ্বিতীয়দিনে ক্রিকেট কমিটির সুপারিশ ও টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাগ্য নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সভার পর বুধবার জানানো হয়, বিশ্বকাপ পেছানোর বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘২০২০ বিশ্বকাপ পেছানো নিয়ে যে সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে তা অসত্য। কোভিড-১৯ ভাইরাসের কারণে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তার খানিকটা উন্নতি হলে বিশ্বকাপ যেন আয়োজন করা যায় সেটা নিয়ে একাধিক বিকল্পের খোঁজ রাখা হচ্ছে।’ আইসিসির এক বিবৃতিতে এমন জানানো হয়েছে।

১৮ অক্টোবর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে গড়ানোর কথা ২০২০ টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। কিন্তু সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ের আগে নিজেদের সীমান্ত খুলে দেয়া হবে না বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। সীমান্ত খুলে দেয়ার পর অতি অল্পসময়ে ১৪দিন কোয়ারেন্টাইনে রেখে ১৬ দলের বিশ্বকাপ কীভাবে আয়োজন করা হবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে আসর পেছানোর খবর ছেপেছিল টাইমস অব ইন্ডিয়া।

এদিকে মঙ্গলবার আইসিসির সভাপতি নির্বাচন নিয়েও কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। বর্তমান সভাপতি শশাঙ্ক মনোহরের মেয়াদ বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা নেই বলেও জানিয়েছে আইসিসি। সভাপতি নির্বাচন প্রক্রিয়া যাতে সুন্দরভাবে পরিচালিত হয় সেটাই ছিল সংস্থাটির মঙ্গলবারের আলোচনার মূল বিষয়বস্তু। নির্বাচন ও বিশ্বকাপ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের কথা জানানো হবে সভার শেষদিন অর্থাৎ, বৃহস্পতিবার।