চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রিমিয়ার টি-টুয়েন্টির চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল

ওয়ানডে লিগে কখনো শিরোপার নাগাল না পাওয়া শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব জিতে নিল প্রিমিয়ার টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট। মিরপুরে ফাইনালে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাবকে ২৪ রানে হারিয়ে ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটের শীর্ষ পর্যায়ে প্রথম ট্রফি হাতে তুলেছে নুরুল হাসান সোহানের দল। বিফলে গেছে দোলেশ্বর অধিনায়ক ফরহাদ রেজার ২০ বলে ৪৫ রানের ঝড়ো ইনিংসটি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: শেখ জামাল-১৫৭/৭, প্রাইম দোলেশ্বর-১৩৩/৮

বিজ্ঞাপন

শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শেখ জামালের দেয়া ১৫৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে দারুণ লড়ছিলেন দোলেশ্বরের দুই ওপেনার মোহাম্মদ আরাফাত ও সাইফ হাসান। জুটিতে ফিফটি পার করার পরই বাধে বিপত্তি। দলীয় ৫৫ রানের মাথায় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট নিয়ে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ফিরে যান আরাফাত। ২৩ বলে করেন ৩৩ রান করা এ ব্যাটসম্যান পরে আর নামতেই পারেননি ২২ গজে।

দারুণ খেলতে থাকা আরাফাত মাঠ ছাড়ার পর দোলেশ্বর ব্যাটিংয়ে নেমে আসে ছন্দপতন। পরের ওভারেই আউট হয়ে যান সাইফ হাসান। একে একে সাজঘরে ফেরেন মার্শাল আইয়ুব (৩), ফরহাদ হোসেন (৬), মাহমুদুল হাসান (৩), সৈকত আলী (২)।

৮৮ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে দোলেশ্বর। শেষ ২৮ বলে তাদের দরকার ছিল ৭০ রান। কঠিন সমীকরণ মেলাতে প্রাণপন লড়েন ফরহাদ রেজা। সালাউদ্দিন শাকিলের করা ১৯তম ওভারে ২টি ছক্কা ও ২টি চার কেবল হারের ব্যবধানই কমাতে পেরেছে।

শেষ ওভারে দরকার ছিল ২৮ রান। শহিদুল ইসলামের প্রথম বলেই উইকেটের পেছনে দাঁড়ানো নুরুল হাসানের দুর্দান্ত ক্যাচে আউট হন ফরহাদ। তাতেই শেষ হয়ে যায় দোলেশ্বরের শিরোপার আশা। এক বল বাদেই মানিক খানকে সাজঘরে পাঠিয়ে চতুর্থ শিকারের দেখা পান ডানহাতি পেসার শহিদুল। ৪ ওভারে দেন মাত্র ১৯ রান। বাঁহাতি পেসার সালাউদ্দিন শাকিল নেন দুটি উইকেট।

বিজ্ঞাপন

বিপিএলে একটি ম্যাচ খেলা তরুণ লেগ স্পিনার মিনহাজুল আবেদিন আফ্রিদি ক্লাব ক্রিকেটে প্রথম খেলতে নেমে করেন দারুণ বোলিং। এই লেগি ৪ ওভারে মাত্র ১০ রান দিয়ে নেন একটি উইকেট। বাঁহাতি স্পিনার ইলিয়াস সানি নেন একটি উইকেট।

ফাইনালে নামার আগে ট্রফি হাতে আনুষ্ঠানিক ফটোসেশনে দুই দলের অধিনায়ক

সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হওয়া ফাইনালে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ইমতিয়াজ হোসেন তান্নার ফিফটি, নুরুল হাসান সোহান ও তানবীর হায়দারের ত্রিশোর্ধ্ব রানের ইনিংসে ভর করে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান তোলে শেখ জামাল। ইমজিয়াজ ৪৪ বলে করেন ৫৬। এ ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও ২টি ছয়ের মার।

শেখ জামালের অধিনায়ক নুরুল হাসান ২৭ বলে ৩ চারে করেন ৩৩ রান। তানবীর মাত্র ১৫ বলে করেন ৩১। তার ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও ১টি ছয়ের মার। ফরহাদ একাই নেন তিন উইকেট। আরাফাত সানি, এনামুল হক জুনিয়র, মানিক খান ও সৈকত আলী নেন একটি করে উইকেট।

ম্যাচে একমাত্র ফিফটি করা ইমতিয়াজ হয়েছেন ম্যান অব দ্য ফাইনাল। অলরাউন্ড নৈপুণ্যে টুর্নামেন্ট সেরা হয়েছেন ফরহাদ রেজা।

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে আগে দুইবার রানার্সআপ হয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর। টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্টে ফাইনালে উঠেও শিরোপার স্বাদ পাওয়া হল না দলটির। শেখ জামাল ওয়ানডে লিগে রানার্সআপ হয়েছিল একবার; ২০১৩-১৪ মৌসুমে। ক্লাব ক্রিকেটের শীর্ষ পর্যায়ে এটিই তাদের প্রথম শিরোপা জয়।

আগামী ৮ মার্চ শুরু হবে ঘরোয়া ক্রিকেটের আসল লড়াই, ওয়ানডে সংস্করণের ঢাকা লিগ। ওয়ানডে সংস্করণের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সঙ্গে টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ায় লম্বা সময় পর। যেখানে আবাহনী-মোহামেডানে মতো ক্লাবকে পেছনে ফেলে ফাইনাল খেলে শেখ জামাল ও প্রাইম দোলেশ্বর।

Bellow Post-Green View