চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘টিকা নিয়েছি শুনে কানাডায় আমার ছেলে তো অবাক’

করোনার টিকা (প্রথম ডোজ) নিয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কাপ্রাপ্ত কিংবদন্তী অভিনেত্রী ববিতা। চ্যানেল আই অনলাইনকে তিনি জানান, ‘বুধবার সকাল সাড়ে আটটায় মহাখালীর বক্ষব্যাধী হাসপাতালে গিয়ে ৯টার মধ্যেই টিকা নিয়ে এসেছি!’

এদিন দুপুর আড়াইটার দিকে ববিতা জানান, টিকা নেয়ার পর কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হয় কিনা, এজন্য আরো আধঘন্টা টিকাকেন্দ্রে ছিলাম। কিন্তু কোনো সমস্যা হয়নি। এখন বাসায় আছি, সুস্থ আছি। আমার আত্মীয় স্বজনরা বলেছিলো যে আপনি ভয় পায়েন না। হয়তো একটু মাথা ব্যথা, জ্বর অনুভূত হতে পারে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তেমন কোনো লক্ষণ নেই।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, আমরা ছোটবেলায় বিভিন্ন ধরনের টিকা দিয়ে অভ্যস্ত, আমাদের কিছু হবেও না আশা রাখি। একটু জ্বর কিংবা ব্যথা তো সে সময়েও হয়েছে।

ঢাকায় একা থাকেন ববিতা, একমাত্র ছেলে থাকেন কানাডায়। টিকা নেয়ার পর ছেলের সাথে কথা হয়েছে তার। ববিতা জানান, আমার ছেলে কানাডায় থাকে। আমি টিকা দিয়েছি শুনে সে তো অবাক। বলে, ‘আম্মা, আমরা কানাডায় থেকে এখনও করোনার টিকার খবর নাই, আর তোমরা ঢাকায় থেকে এরমধ্যে টিকা নিয়েও নিলে!’ আমিও ছেলেকে ঠাট্টা করে বলেছি, ‘তাহলে তুমি ঢাকায় চলে আসো! টিকা নিয়ে আবার কানাডায় চলে যাও!’ আসলে ওরা দুঃখ করছে, বলছে বাংলাদেশ সরকার এতো সুন্দরভাবে টিকা দেয়ার ব্যবস্থা করেছে, অথচ কানাডার সরকার এখনও হিমশিম খাচ্ছে। যাও কিছু টিকা এসেছে, সেগুলো সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য।

করোনা আসার পর কোথাও বের হননি ববিতা। জানালেন, আমি একদম বাসা থেকে বের হইনি। তাছাড়া আমার ছেলে বার বার বলেছে, ‘খবরদার মা, তুমি বাইরে বের হবা না। তুমি একা মানুষ, কোনো সমস্যা হলে ঝামেলা হয়ে যাবে।’ আমিও বের হইনি। আর বের হয়ে যাবোই বা কোথায়?

বিজ্ঞাপন