চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টিএসসিতে মৌলবাদ বিরোধী প্রতিবাদী সন্ধ্যা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি)তে অনুষ্ঠিত হয়েছে ধর্ম ব্যবসা ও মৌলবাদ বিরোধী প্রতিবাদী সন্ধ্যা। সেখানে ধর্ম ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সকলকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান আয়োজক ও শিক্ষার্থীরা।

শনিবার সন্ধ্যায় ডাকসুর সাবেক সদস্য তানভীর হাসান সৈকতের আহ্বানে সাড়া দিয়ে এই কর্মসূচিতে অংশ নেন শিক্ষার্থীরা। সেখানে প্রতিবাদী কবিতা, মূকাভিনয়, দেশাত্মবোধক গান পরিবেশনের মাধ্যমে মৌলবাদ রুখে দেওয়ার আহ্বান জানান তারা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

কর্মসূচি সম্পর্কে জানতে চাইলে আয়োজকদের মধ্যে অন্যতম সৈকত চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, ‘আমাদের অবস্থান ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধে নয়, আমরা তাদের বিরুদ্ধে যারা ধর্মকে পূঁজি করে ব্যবসা করে, রাজনীতি করে। আমরা সম্প্রতি লক্ষ্য করেছি একটি গোষ্ঠী ধর্মকে পূঁজি করে দেশকে অস্থিরতার দিকে নেওয়ার চেষ্টা করছে। আমরা লক্ষ্য করেছি মহান মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত সৈনিকরাই এর অগ্রভাগে রয়েছে। মৌলবাদের শিকড় উপরে ফেলতেই আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস।’

বিজ্ঞাপন

ঢাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী তারেক হাসান নির্ঝর বলেন, হাজার বছরের বাঙালি সংস্কৃতির অপূর্ব স্রোতধারা তখনই বাধার মুখে পড়ে, যখন ধর্মের নাম করে কিছু অসৎ ব্যক্তি এদেশের শান্তিপ্রিয় মুসলিম, হিন্দু ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের ধর্মের প্রতি নির্জলা আর পবিত্র অনুভূতি নিয়ে অপরাজনীতি শুরু করে৷

তিনি বলেন, এদেশের হাজার বছরের সংস্কৃতির সঙ্গে যেমন মিশে আছে পালা-পার্বন, লালন-ভাটিয়ালি, রবীন্দ্র-নজরুল তেমনি এদেশের সংস্কৃতির আষ্টেপৃষ্ঠে লেপ্টে আছে গান, কবিতা, চিত্রকর্ম, ভাস্কর্যসহ শিল্পকলার নানা অনুষঙ্গ। এদেশের ইতিহাসের দেয়ালে দেয়ালে ছাপাঙ্কিত হয়ে আছে এক মহানায়কের ছবি, যার নাম শেখ মুজিবুর রহমান।

ধর্মের ভিন্নতা আমাদের জাতীয়তাবাদে কোনোদিন বিভেদের দেয়াল তৈরি করতে পারেনি উল্লেখ করে এই শিক্ষার্থী বলেন, একাত্তরে দেশ রক্ষার লড়াইয়ে মানুষ হয়ে মানুষকে বাঁচাতে বন্দুক হাতে পাকিস্তানি হানাদারদের বুলেট বেয়নেটের সামনে দাঁড়িয়েছে এ দেশের মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি ফেরদৌস খান নির্ঝর বলেন, বাংলাদেশ ও মৌলবাদ সম্পূর্ণ বিপরীত দুটি শব্দ। বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্মই হয়েছে মৌলবাদের চর্চাকারী এক রাষ্ট্রের সাথে লড়াই করে। তারপরও আমাদের আজ দাঁড়াতে হয় মৌলবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে। মৌলবাদ বোমার মতই এক মারণাস্ত্র। এর চর্চার ফলাফল মনুষ্যত্বের মৃত্যু, ধর্মীয় শান্তিবোধের মৃত্যু।

বিজ্ঞাপন