চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যমুনা নদীতে নৌকাডুবিতে দুই শিশুসহ এক নারী নিখোঁজ 

করোনার সংক্রমণ রোধে গণপরিবহন বন্ধ থাকার মধ্যেই বিকল্প পথে গ্রামের বাড়ি ফেরার পথে নৌকা যোগে যমুনা নদী পার হতে গিয়ে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে নৌকা ডুবে দুই শিশুসহ এক নারী নিখোঁজ রয়েছে।

নিখোঁজ ব্যক্তিরা হলেন, বগুড়ার ধুনট উপজেলার ইজলসিং গ্রামের ফজলুল হকের স্ত্রী রত্না বেগম (২০) এবং ছেলে রবিউল (৭)। অপরজন হলো, বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার তমিজ উদ্দিনের মেয়ে অলিফা আক্তার (১৬)।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার দুপুরের বঙ্গবন্ধু সেতুর ১৪ নং পিলারের নিকট ভূঞাপুর অংশে এ ঘটনা ঘটে। এরা সবাই করোনাভাইরাসের কারণে ঢাকা থেকে বগুড়া গ্রামের বাড়িতে ফিরছিল। এ ঘটনায় ১১ জনকে জীবিত উদ্ধার করে স্থানীয় জেলেরা উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন

এবিষয়ে ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদুল ইসলাম চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান, করোনা ভাইরাসের কারণে গণপরিবহন বন্ধ থাকায় ঢাকা ও গাজীরপুরে বিভিন্ন এলাকা থেকে তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করা ১৪ জন শ্রমিক বাড়ি যাওযার জন্য সিএনজি, অটোরিকশা ও পায়ে হেটে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব পর্যন্ত আসে। সেতুর উপর দিয়ে পারাপারের কোন ব্যবস্থা না থাকায় জেলেদের মাছ ধরার ছোট নৌকা যোগে যমুনা পাড় হওয়ার জন্য উদ্যোগ নেয়। এসময় ১৪ জন যাত্রী নিয়ে বঙ্গবন্ধু সেতুর ১৪ নং পিলারের কাছে গেলে স্রোতের কারণে নৌকা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। এক পর্যায়ে নৌকায় থাকা যাত্রীরা হুরোহুড়ি করলে নৌকা ডুবে যায়। যাত্রীদের চিৎকারে মাছ ধরার জেলেরা ১১ জনকে উদ্ধার করে। এ সময় ২ শিশুসহ ১ নারীকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

নিখোঁজ রত্নার শ্বশুর মো. শাহজান মুঠোফোনে জানান, ‘নৌকায় আমার ছেলে, ছেলে বউ ও নাতি ছিলো। ছেলে সাঁতরাইয়া কোন রকম পাড়ে উঠলেও ছেলের বউ রত্না ও নাতি রবিউলের কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না।’