চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘টাইলার রেক বেঁচে আছেন!’

‘এক্সট্র্যাকশন টু’র শুটিং শুরুর খবর দিলেন অভিনেতা ক্রিস হেমসওয়ার্থ। পরিচালক স্যাম হারগ্রেভের সঙ্গে এখন চেক রিপাবলিকের প্রাগে আছেন তিনি। সামাজিক মাধ্যমে অভিনেতা একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন, যেখানে বরফের মাঝে তীব্র বাতাসে ট্রেনে চড়ে কোথাও যেতে দেখা গেছে তাকে।

ভিডিওর ক্যাপশনে অভিনেতা লিখেছেন, ‘এক্সট্র্যাকশন টু!!! টাইলার রেক বেঁচে আছেন! কীভাবে সম্ভব ভাবছেন? দেখতে হলে অপেক্ষা করতে হবে।’

ভিডিওতে ক্রিস হেমসওয়ার্থের সঙ্গে স্টান্টম্যান থেকে ডিরেক্টর বনে যাওয়া স্যাম হারগ্রেভও ছিলেন। তিনি ‘এক্সট্রাকশন’ পরিচালনা করেছিলেন। ভিডিওতে অভিনেতা বলেন, ‘এক্সট্র্যাকশন টু-এর শুটিংয়ের প্রথম দিনে নির্মাতা স্যাম হারগ্রেভের সঙ্গে। আমরা প্রাগে। আগের ছবির চাইতে দুটি বিষয় পুরো আলাদা। একটি হলো, খুবই ঠাণ্ডা। দ্বিতীয়টি হলো, আমি বেঁচে আছি। কীভাবে? জানতে হলে ছবিটি দেখতে হবে।’

‘এক্সট্র্যাকশন’-এর শেষে গুলিবিদ্ধ হয়ে বাংলাদেশের একটি বুড়িগঙ্গা ব্রিজ থেকে পানিতে পড়ে যেতে দেখা যায় টাইলরকে। এরপরেই অভির কণ্ঠে শোনা যায় ‘আপনি নদীতে পড়ে গেছেন বলে ডুবে যাননি, আপনি ডুবে আছেন বলে ডুবে গেছেন’। তারপর টাইলরের জ্ঞান ফিরে এবং তিনি সাঁতরে ওঠেন।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, ‘এক্সট্র্যাকশন’ এর তুলনায় এর সিকুয়েলে আরও অনেক বেশি স্ট্যান্ট ও অ্যাকশন থাকবে। যা ছবিটির প্রতি দর্শকদের আকর্ষণ আরো বাড়িয়ে তুলবে।

‘এক্সট্র্যাকশন’ ছবিটির কাহিনী মূলত বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকাকে ঘিরে সাজানো হয়েছিল। মুম্বাইয়ের এক গ্যাংস্টারের ছেলেকে অপহরণ করে ঢাকায় আটকে রাখে বাংলাদেশের এক গ্যাংস্টার। সেই ছেলেকে ঢাকা থেকে উদ্ধার করতে আনা হয় একজন মার্সেনারি ক্রিস হেমসওয়ার্থকে। ছবিতে যাকে ‘টাইলর রেক’ চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায়। এরপর চলে একের পর এক অভিযান।

ক্রিস হেমসওয়ার্থ ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করেছিলেন হলিউডের ডেভিড হারবার, ড্রেক লুকের মতো তারকারা। এছাড়া বলিউড থেকে দেখা গিয়েছিল পঙ্কজ ত্রিপাঠি ও রনদীপ হুদার মতো অভিনেতাদের।

বিজ্ঞাপন