চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঝিনাইদহের দুই জঙ্গি আস্তানায় অভিযান স্থগিত

ঝিনাইদহের ধানবাড়িয়া চুয়াডাঙ্গা গ্রামের দুটি জঙ্গি আস্তানায় অভিযান স্থগিত করা হয়েছে। বুধবার এই অভিযান আবারও শুরু হবে। ঢাকা থেকে আসা বোম ডিসপোজাল ইউনিট বুধবারের অভিযানে অংশ নেবে। তবে আজ মঙ্গলবার রাতে ঘটনাস্থল ঘেরাও করে রাখা হবে। আশপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারাও বলবৎ থাকবে।

এর আগে দুপুর একটার দিকে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা একটি বাড়ির অভিযান সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। সোমবার রাতে গ্রেফতার হওয়া নব্য জেএমবির সদস্য সেলিম ও প্রান্তকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান শুরু হয়।একটি বাড়ির বাগানে মাটির নিচ থেকে উদ্ধার করা হয় দুইটি সুইসাইডাল ভেস্ট, চারটি সক্রিয় বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক (সিও) খন্দাকর রফিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে খুলনা থেকে র‌্যাবের বোমা নিস্ক্রিয় দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ শুরু করে। প্রথমে তারা জঙ্গি প্রান্ত এর একটি বাড়ির পাশের বাঁশ বাগানের নিচে গর্ত খুড়ে দুইটি সক্রিয় সুইসাইডাল ভেস্ট বোমা উদ্ধার করে।এরপর সেলিমের বাড়ির ৫টি স্পটে অভিযান চালানো হয়। এসময় দুপুর দুইটার দিকে সেলিমের বাড়ির পাশের গর্ত খুড়ে পাঁচটি সক্রিয় বোমা উদ্ধার করা হয়। সেখান থেকে আরও ৪০টি বোমা তৈরির সার্কিট, ২০টি ডিনামাইট স্টিক ও বিস্ফোরকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়।

এর আগে গত ৭ মে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কুমড়োবাড়ীয়া ইউনিয়নের লেবুতলা গ্রামের জঙ্গি আস্তানায় অপারেশন ‘সাটল স্প্লিট’ অপারেশন করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি )। ওই অভিযানে দুই জঙ্গি নিহত হয়। একইদিন বজরাপুরের পাশাপাশি সদর উপজেলার লেবুতলায়ও একটি পরিত্যক্ত জঙ্গি আস্তানা থেকে কিছু বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়।

এর আগে ২২ এপ্রিল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়াহাটি গ্রামের ঠনঠনেপাড়ায় জঙ্গি আস্তানায় সিটিটিসি ইউনিটের সদস্যরা ‘অপারেশন সাউথ প’ চালায়। ওই আস্তানা থেকে বিস্ফোরক তৈরি রাসায়নিক ভর্তি ২০টি ড্রামসহ পিস্তল, গুলি উদ্ধার করা হয়।পাঁচটি বোমা নিষ্ক্রিয় করা হয়। বাড়ির ভেতর থেকে ১৫টি জিহাদি বইও উদ্ধার করা হয়েছে। তবে সেখানে কাউকে পাওয়া যায়নি।

Bellow Post-Green View