চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জ্যাকব ব্লেককে গুলির ঘটনায় কোনো পুলিশের শাস্তি হচ্ছে না

যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের কেনোসা শহরে মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ জ্যাকব ব্লেককে গুলি করার ঘটনায় কোনো পুলিশ অফিসারকে অভিযুক্ত করা হয়নি।  এই ঘটনায় কাউকে অভিযুক্ত এবং শাস্তির মুখোমুখি করা হচ্ছে না।

বিবিসি বলছে, গত বছরের ২৩ আগস্ট কেনোসা শহরে কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক জ্যাকব ব্লেক পুলিশের গুলিতে আহত হন।

বিজ্ঞাপন

সে সময় সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায়, কৃষ্ণাঙ্গ ব্লেক তার পার্ক করা গাড়ির দিকে যাচ্ছেন। তার পিছনে বন্দুক হাতে দুই পুলিশ অফিসার।  ব্লেক গাড়ির দরজা খুলে ভেতরে প্রবেশ করতে যেতেই একজন পুলিশ কর্মী তার শার্ট ধরে টেনে ধরেন। তারপর গুলি চালাতে শুরু করেন। ভিডিওতে মোট সাতটি গুলির আওয়াজ শোনা যায়। তবে কতজন পুলিশ কর্মকর্তা তাকে গুলি করেছে তা স্পষ্ট হওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

ব্লেক প্রায় পঙ্গু হয়ে যায় ওই ঘটনায়।  অপর এক কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডকে গুলি করে হত্যার তিন মাসের মাথায় এমন আরেকটি নৃশংস ঘটনায় পুলিশের বর্ণবাদী আচরণের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে বিক্ষুব্ধ জনতা আরও ফুঁসে উঠে। ছড়িয়ে পড়ে হিংসাত্মক আন্দোলন।

এই বিষয়ে মঙ্গলবার কেনোসা কাউন্টি ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি মাইকেল গ্রেভলি বলেন, প্রসিকিউটাররা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা শেসকি আত্মরক্ষার জন্য গুলি চালিয়েছিলেন। ব্লেক যখন পুলিশের মুখোমুখি হন, তখন তার কাছে ছুরি ছিল।

জ্যাকব ব্লেকের আইনজীবী এই বিচারের সমালোচনা করে বলেন, এই সিদ্ধান্তের ফলে মার্কিন বিচারব্যবস্থার প্রতি মানুষের আস্থা আরো কমে যাবে। শেসকির বিরুদ্ধে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ ছিলো।

আর জ্যাকবের কাকা জাস্টিন ব্লেক বলেছেন, উইসকনসিন প্রশাসন ও ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি আমাদের মুখে চড় মারলেন। যা ঘটেছে তা বর্ণবাদের প্রকাশ ছাড়া আর কিছুই হতে পারে না।