চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জোলির অভিযোগে ‘মন ভেঙে গেছে’ ব্র্যাড পিটের!

নতুন মোড় নিয়েছে অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ও ব্র্যাড পিটের মামলাটি। ব্র্যাড পিটের বিরুদ্ধে পারিবারিক সহিংসতার অভিযোগ তুলেছেন জোলি। জানা গেছে, জোলির এমন অভিযোগে ‘মন ভেঙে গেছে’ ব্র্যাড পিটের।

ব্র্যাড পিটের কাছের এক সূত্র পেজ সিক্সে বলেছেন, ‘জোলির এমন পথ বেঁছে নেয়ার বিষয়টিতে ব্র্যাড পিটের মন ভেঙে গেছে। বিষয়টির সাথে অনেক আবেগ জড়িত ছিল।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘ব্র্যাড পিট তার আগের বিষয়গুলো স্বীকার করে নিয়েছেন, তিনি মদ্যপানও ছেড়ে দিয়েছেন।’

বিজ্ঞাপন

১২ মার্চ কিছু অভিযোগপত্র আদালতে জমা দিয়েছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। সেখানে ‘ম্যালেফিশেন্ট’ অভিনেত্রী বলেছেন, তিনি পারিবারিক সহিংসতার শিকার হয়েছেন এবং তার কাছে যথেষ্ট প্রমাণও আছে এই অভিনেতার বিরুদ্ধে।

ভ্যানিটি ফেয়ারের সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালে ডিভোর্সের জন্য আবেদন করার সময়ও একই ধরণের অভিযোগ করেছিলেন জোলি। বলেছিলেন ব্র্যাড পিট সন্তানদের গায়ে হাত তোলেন। আর একারণে ব্র্যাড পিটের সঙ্গে সন্তানের অভিভাবকত্ব ভাগ করে নিতে চান না জোলি।

পিট ও জোলির বড় সন্তান ম্যাডক্স প্রাপ্তবয়স্ক হিসেবে আদালতে ব্র্যাড পিটের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, নামের শেষের অংশ থেকে ‘পিট’ বাদ দিতে চেয়েছিলেন ম্যাডক্স। যদিও জোলি বিষয়টি সমর্থন করেননি বলে জানিয়েছেন।

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ও ব্র্যাড পিটের পথ আলাদা হয়েছে ২০১৬ সালে। জোলি বিবাহবিচ্ছেদ চেয়ে মামলা করেন সেবছরই। সেই মামলা এখনও চলছে। তার অন্যতম কারণ, দুই তারকার বিশাল সম্পত্তির ভাগাভাগি এবং তাদের সন্তানদের কাস্টডি-সংক্রান্ত জটিলতা। মিরর