চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটে শোক দিবস পালন

জেদ্দায় অবস্থিত বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে প্রাঙ্গণে স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় জাতীয় সংগীত পরিবেশনের সাথে সাথে কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিত করেন।

এরপর তার নেতৃত্বে কনস্যুলেটের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রাঙ্গণে স্থাপিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির অংশ হিসেবে নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে পবিত্র কোরআন খতম ও বিশেষ মোনাজাত করা হয়। প্রবাসী বিভিন্ন সামাজিক পেশাজীবী গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ জাতির পিতার প্রকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া বিকেলে জুম প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল সভায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা সহ ১৫ আগস্ট এর সকল শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী,মপররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়।

আলোচনা সভায় কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক ৭৫ এর ১৫ আগস্টের নির্মম হত্যাযজ্ঞসহ জাতির পিতার জীবন ও কর্মের উপর আলোকপাত করেন। তিনি বলেন, ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর নীতি ও আদর্শকে হত্যা করতে চেয়েছিল যা সফল হয়নি, প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধুর অবিনাশী চেতনা ও আদর্শ চির প্রবাহমান থাকবে।

কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেছে যা বিশ্বে রোল মডেল।

অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের উপর নির্মিত একটি বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

বিজ্ঞাপন