চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘জীবনের বন্ধন’ স্লোগানে যাত্রা শুরু করল নেক্সাস টেলিভিশন

‘জীবনের বন্ধন’—এই স্লোগানে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করলো নন-ফিকশন স্যাটেলাইট চ্যানেল নেক্সাস টেলিভিশন।

আজ শুক্রবার শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মধ্য দিয়ে শুরু হয় নেক্সাসের বাণিজ্যিক সম্প্রচার কার্যক্রম।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এতদিন টেলিভিশন চ্যানেলটি পরীক্ষামূলক সম্প্রচারে ছিল। এই টেলিভিশনের মালিকানায় রয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এস. আলম গ্রুপ।

রাতে টেলিভিশনটির কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এডিটর আমীন আল রশীদের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য দেওয়া হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ৩০ লাখ মানুষ এবং সম্ভ্রম হারানো দুই লাখ নারীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নেক্সাস টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সানাউল্লাহ জানান, এই টেলিভিশন প্রতিদিন তুলে ধরবে দেশের সুখ-সমৃদ্ধির গল্প, মানুষের বেঁচে থাকা ও ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই, তারুণ্যের শক্তি, নারীর এগিয়ে চলাসহ নানা বিষয়; রচিত হবে জীবনের বন্ধন।

বিজ্ঞাপন

টেলিভিশনের উদ্বোধন ঘোষণা করে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের হাত ধরেই দেশে বেসরকারি টেলিভিশনের বিকাশ ঘটেছে।

তিনি আশা করেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার প্রক্রিয়ায় নেক্সাস টেলিভিশন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

অনুষ্ঠানে নেক্সাসের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা মনজুর আহমেদ নতুন এই টেলিভিশন চ্যানেলটি এগিয়ে নিতে দর্শক, বিজ্ঞানপদাতা ও শুভানুধ্যায়ীদের সহযোগিতা কামনা করেন।

সেইসাথে করোনার মতো মহামারিকালে একটি নতুন টেলিভিশনের যাত্রা শুরুর চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করায় এর কর্মীদের ধন্যবাদ জানান।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিদ্যমান বাস্তবতায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে স্টুডিওতে কোনো অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। ভার্চুয়ালি এই নতুন টেলিভিশনকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ ড. ওয়াহিদউদ্দীন মাহমুদ, প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমেদ, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মকবুল হোসেন, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার, বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ, টেলিভিশন চ্যানেল মালিকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব টিভি চ্যানেল ওনার্স (অ্যাটকো)-এর সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনসহ দেশের বিশিষ্টজনরা।

টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ বলছে, নেক্সাস টেলিভিশনে সংবাদ, নাটক, সিনেমা বা মিউজিক্যাল শো না থাকলেও কারেন্ট অ্যাফেয়ার্সভিত্তিক নানা অনুষ্ঠান ও ডকুমেন্টারি প্রচারিত হবে। করোনার মহামারির কারণে একসঙ্গে সবগুলো অনুষ্ঠান প্রচারিত না হলেও, ধীরে ধীরে তা দর্শকদের সামনে তুলে ধরা হবে।