চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জিদানের রিয়াল ছাড়ার আসল কারণ তাহলে এই

রিয়াল মাদ্রিদকে টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতানোর পরই দলটির কোচের পদ ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দেন জিনেদিন জিদান। তার ওই ঘোষণায় ফুটবলবিশ্ব শুধু অবাকই হয়নি, স্তম্ভিতও হয়েছিল।

বিদায় ঘোষণার সংবাদ সম্মেলনে রিয়াল ছাড়ার অনেকগুলো কারণ জানিয়েছিলেন জিদান নিজেই। বিশ্লেষকরাও এর পেছনে অনেক সূত্র খুঁজেছেন। কিন্তু একটি কারণের কথা কেউই তোলেনি, যেটা জানাচ্ছে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক এএস। রিয়াল প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্টিনো পেরেজের সঙ্গে দ্বন্দ্বই আসলে জিদানের ক্লাব ছাড়ার আসল কারণ বলে জানাচ্ছে পত্রিকাটি।

বিজ্ঞাপন

জিদানের পর গত গ্রীষ্মে রিয়াল ছাড়েন আরেক হাই-প্রোফাইল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দুজন চলে যাওয়ার পর প্রতিপক্ষের উপর আর সেভাবে ছড়ি ঘোরাতে পারছে না রিয়াল। লা লিগায় রীতিমতো সংগ্রাম করতে হচ্ছে তাদের। তালিকার চার নম্বরে থাকলেও বার্সেলোনার চেয়ে ১০ পয়েন্ট পিছিয়ে। শেষ ষোলো নিশ্চিত করলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপপর্বে আগের মতো দাপট দেখাতে পারেনি টুর্নামেন্টটির ‘রাজারা’।

বিজ্ঞাপন

রিয়ালের এমন অবস্থা কেনো? উত্তর দিয়েছে এএস। তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন রিয়ালের সাবেক প্রেসিডেন্ট র‌্যামন ক্যালদেরন। তিনি জানিয়েছেন, রোনালদোকে বিক্রি করতে চাননি জিদান। বরং রোনালদোকে রেখে বেলকে ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন।

ক্যালদেরন বলেছেন, ‘বেলকে বিক্রি করে জিদান বরং রোনালদোকে ধরে রাখতে চেয়েছিলেন। কিন্তু জিদানের চাওয়ার ঠিক উল্টোটা করেন পেরেজ।’

সাবেক প্রেসিডেন্টের আরও দাবি, ‘খেলোয়াড়দের সই বা বিক্রি করার সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে আরও বেশি ক্ষমতা চেয়েছিলেন জিদান। কিন্তু তার চাওয়ার সঙ্গে ক্লাবের চাওয়া মেলেনি, তাই চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন এবং আমি বলব, সে ঠিক কাজটাই করেছে।’

জিদান এবং প্রেসিডেন্ট পেরেজের মধ্যকার এই বিপরীতমুখীতাকে ফরাসি কিংবদন্তির চলে যাওয়ার কারণ হিসাবে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়নি। তবে ধারণা দেয়া হয়েছে, দুজনের মধ্যে ‘বিশ্বাসের অভাব’ই জিদানের চলে যাওয়ার সিদ্ধান্তের প্রধান কারণ হতে পারে।

Bellow Post-Green View