চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জার্মানিতে বোরকার উপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা

জার্মানিতে বোরকার উপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা অনুমোদন করেছে জার্মানি সংসদের নিম্নকক্ষের সদস্যরা।

এখন এই আইনটি অনুমোনের জন্য যাবে উচ্চকক্ষে। এই নিষেধাজ্ঞা অনুযায়ী এখন থেকে সরকারী কর্মকর্তা, বিচারক এবং সেনাবাহিনীতে কর্মরত মুসলমান নারীরা তাদের কর্মক্ষেত্রে বোরকা ব্যবহার করতে পারবেন না।

গত ডিসেম্বরে জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল মুসলমান নারীদের সম্পূর্ণ মুখ ঢাকা বোরকা আইনগতভাবে নিষিদ্ধ করার বিষয়টি উত্থাপন করেন। তারই ধারাবাহিকতায় এই আংশিক নিষেধাজ্ঞার অনুমোদন।

সেখানকার ডানপন্থী দলগুলো অবশ্য উন্মুক্ত জায়গায় বোরকা পুরোপুরি নিষিদ্ধ চান। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী টমাস ডি মিইজিয়ের বলেছেন, এর মাধ্যমে জার্মানি অন্য সংস্কৃতির বিষয়ে ঠিক কতটা সহনশীলতা দেখাবে তা সুনির্দিষ্ট করা হলো।

বিজ্ঞাপন

গত দু বছরে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ থেকে জার্মানিতে ১০ লাখের বেশি মুসলমান অভিবাসী এসেছে। আর মুসলমান নারীদের ভেতরে সম্পূর্ণ মুখ ঢাকা নেকাব বা বোরকার প্রচলন রয়েছে।

তারও আগে জার্মানির প্রায় ১৬টি রাজ্যে শিক্ষকদের বোরখা ব্যাবহারে নিষেধাজ্ঞা ছিল।

কেবল জার্মানিতে নয়, লাগাতার সন্ত্রাসী হামলার কারণে এবং জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় ইউরোপের অন্যান্য দেশেও মুসলমানদের হিজাব বা বোরখার বিষয়ে বিতর্ক ছিল।

তবে বহু সংস্কৃতির ধারণায় বিশ্বাসী ইউরোপে মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবং ভিন্নধর্মীয় অনুভূতির বিষয়ে শ্রদ্ধাশীলতার কারণে এতদিন এ ধরনের নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে ছাড় দিতে দেখা গেছে অনেক দেশকে।

বিজ্ঞাপন