চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জনি ডেপকে হতাশ করেনি ডিওর

হঠাৎ করেই যেন হলিউড অভিনেতা জনি ডেপের জীবন ওলট-পালট হয়ে গেছে। স্ত্রীর বিরুদ্ধে করা মানহানি মামলায় হেরে একের পর এক কাজ হারাচ্ছেন অভিনেতা। তবে স্রোতের বিপরীতে হেঁটেছে ডিওর।

ক্রিশ্চিয়ান ডিওরের ‘ডিওর সভেজ’-এর বিজ্ঞাপনে জনি ডেপকে দেখা গিয়েছে সম্প্রতি। এতে বেজায় খুশি জনি ডেপের ভক্তরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ভক্ত লিখেছেন, ‘জনি ডেপ এখনও বিজ্ঞাপনে আছেন, কারণ ওয়ার্নার ব্রাদার্সের মতো বোকা নয় ডিওর।’

বিজ্ঞাপন

‘ফ্যান্টাস্টিক বিস্টস থ্রি’ থেকে জনি ডেপকে বাদ দিয়ে ম্যাডস মাইকেলসেনকে নেয়ায় সমালোচনার ঝড় বইছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকেই সিনেমাটি বয়কট করার ঘোষণা দিয়েছেন।

হলিউড তারকা জনি ডেপ ও অ্যাম্বার হার্ড ২০১৫ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেও ২০১৬ সালে জনি ডেপের বিরুদ্ধে শারীরিক ও যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনে আদালতে ডিভোর্সের আবেদন করেন অ্যাম্বার হার্ড। স্ত্রীর সেই অভিযোগ অস্বীকার করলেও প্রায় ৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করে বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেন জনি ডেপ। সেই সময়ে আদালতের কাছে দুইজন প্রতিজ্ঞা করেছিলেন যে, ভবিষ্যতে তাদের দাম্পত্য জীবন নিয়ে জনসম্মুখে আর কোনো ধরনের আলোচনা করবেন না তারা।

কিন্তু ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন পোস্টের কাছে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন স্বামী জনি ডেপের বিরুদ্ধে আবারও শারীরিক ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেন তার সাবেক স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ড। এ কারণেই পরবর্তীতে ব্যক্তিগত আইনজীবীর সহায়তায় মানহানির মামলা করেছিলেন জনি ডেপ। ৫০ মিলিয়ন ডলারের এই মানহানি মামলায় হেরে ক্যারিয়ার নিয়ে বিপাকে পড়েছেন এই তারকা। কইমই