চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জনগণকে ঝুঁকিতে রেখে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখবেন না ট্রুডো

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড সংখ্যক বেড়ে যাওয়ার কারণে কানাডার বিভিন্ন প্রদেশের জনগণকে ঝুঁকিতে ফেলে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখবেন না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

মঙ্গলবার অটোয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন ট্রুডো বলেন, প্রয়োজন হলে কানাডিয়ানদের আরও সাহায্য দিবে ফেডারেল সরকার।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান হারে বেড়ে যাওয়ায় জনগনের সুরক্ষিত রাখতে এবং চাকরির সুরক্ষার জন্য সরকারের উপর চাপ বেড়েছে।

প্রদেশের নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন অর্থনীতির ধীরগতির কথা না ভেবে জনস্বাস্থ্যের প্রতি গুরুত্ব দিন ।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, আমি প্রিমিয়ার এবং আমাদের মেয়রদের অনুরোধ করছি সঠিক কাজটি করার জন্য। জনস্বাস্থ্য রক্ষায় এখনই কাজ করুন। যদি মনে করেন সমর্থনটিতে কিছু অনুপস্থিত রয়েছে, আমরা আপনার নাগরিকদের জন্য প্রস্তাব দিচ্ছি, আমাদের বলুন। এটি যাই হোক না কেন, তবে এটি দীর্ঘ সময় নেয়।

সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন এবং করোনা মহামারীর দীর্ঘ নয় মাসে তার সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। এ সময় তিনি কানাডিয়ানদের নিজ নিজ এলাকার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান।

উল্লেখ্য কানাডার প্রধান চারটি প্রদেশে ক্রমবর্ধমান হারে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে হাসপাতাল, নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ব্যাপকহারে চাপ পড়ছে। ইতিমধ্যে কানাডার আলবার্টায় নাটকীয়ভাবে করোনা ভাইরাস বৃদ্ধি পাওয়ায় সারা প্রদেশ জুড়ে একদল চিকিৎসক আলবার্টা সরকারকে অবিলম্বে দু’সপ্তাহের জন্য জরুরিভিত্তিতে লকডাউনের আহ্বান জানিয়েছেন ।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৭১ হাজার ৬৬৯ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ১০ হাজার ৬ শত ২২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ২০ হাজার ৩০৬ জন।