চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ছয় দিনে বক্স অফিসে কতো কোটি আয় করলো ‘অপরাজিত’?

মুক্তির আগে থেকেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিচালক অনীক দত্তর ছবি ‘অপরাজিত’। যে ছবির মাধ্যমে বাংলার কিংবদন্তী নির্মাতা সত্যজিৎ রায়কে শ্রদ্ধা জানানোই ছিলো মূল উদ্দেশ্য।

সত্যজিতের ‘পথের পাঁচালী’ তৈরির নেপথ্য কাহিনি অবলম্বনে তৈরি হয়েছে ‘অপরাজিত’। ছবিটি মুক্তির প্রথম সপ্তাহে কলকাতার অভিজাত হল নন্দনে স্থান পায়নি। তবে তাতে আফসোস নেই পরিচালকের। কারণ ছবিটি এখন শুধু শহর কলকাতার দর্শকের নয়, ভারতের অন্যান্য অঞ্চলেও বেশ প্রশংসা কুড়াচ্ছে!

Reneta June

কলকাতার গণমাধ্যম বলছে, ‘অপরাজিত’ চলছে মুম্বাই ও দিল্লীর বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহেও। করছে দুর্দান্ত ব্যবসা। আর এবার জানা গেল, মুক্তির প্রথম ছয় দিনে ছবিটি আয় করেছে ১ কোটি ৫৪ লাখ টাকা! যে পরিসংখ্যান শেয়ার করলেন রানা সরকার।

বিজ্ঞাপন

এর আগে দেব-জিৎ-এর ছবিরও বক্স অফিস রিপোর্ট পেশ করেছিলেন রানা সরকার। এদিন তিনি সদর্পে ঘোষণা করেন ‘অপরাজিত’ মুক্তির প্রথম ৬ দিনের ব্যবসায়িক হল রিপোর্ট।

ছয় দিনে ‘অপরাজিত’র বক্স অফিস রিপোর্ট- শুক্রবার- ৫ লাখ, শনিবার- ১৮ লাখ, রবিবার- ৩৯ লাখ, সোমবার- ৩৪ লাখ,  মঙ্গলবার- ২৮ লাখ, বুধবার- ৩০ লাখ। এই পরিসংখ্যান ১০ শতাংশ কম-বেশি হতে পারে বলে জানিয়েছেন রানা।

সঙ্গে তিনি আরও জানান, ‘প্রমাণ হলো কন্টেন্ট, দর্শক আর বাঙালিই আসল সুপারস্টার’। ট্রেন্ড আর লোকের মুখের প্রচারই এই ছবির সাফল্যের মূল চাবিকাঠি, রানা সরকার আরও জানিয়েছেন এই ছবির কালেকশন ৫ কোটির মাইলস্টোন ছুঁতে পারে। যা করোনা পরবর্তী সময়ে বাংলার ছবির ক্ষেত্রে বিরাট প্রাপ্তি হবে। রানা সরকারের এই স্ট্যাটাস শেয়ার করেছেন পরিচালক অনীক দত্তও।

ছবিটি যারাই দেখছেন, বলছেন বাঙালিকে নস্টালজিক করে দিয়েছে ‘অপরাজিত’। ছবিতে সত্যজিৎ রায়ের আদলে তৈরি চরিত্রে অভিনয় করেছেন জিতু কমল। অন্যদিকে সত্যজিত-পত্নী বিমলা রায়ের জীবন নির্ভর চরিত্রে রয়েছেন সায়নী। -হিন্দুস্তান টাইমস