চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ছোট ছোট অবদানকেও কৃতিত্ব দিচ্ছেন তামিম

বাংলাদেশ দলে তরুণ ক্রিকেটারদের অবদান নিয়ে প্রশ্ন ওঠে মাঝে মধ্যেই। দলের বিপদে তারা হাল ধরতে পারেন খুব কম সময়ই। শুক্রবার হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে তরুণরা যেভাবে অবদান রেখেছেন, তাতে ছিল নানা প্রশ্নের জবাব।

ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল মনে করেন উদীয়মানদের মেলে ধরার আদর্শ ম্যাচ ছিল এটি। যখন কিনা অভিজ্ঞদের প্রায় সবাই ব্যাট হাতে ব্যর্থ, তখন লিটন-আফিফ আর মিরাজদের ব্যাটে প্রতিরোধ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

শুরুর বিপর্যয় কাটিয়ে ১০২ রানের ইনিংস খেলেন লিটন দাস। শেষে ঝড় তুলে আফিফ হোসেন করেন ৪৫, মেহেদী হাসান মিরাজ খেলেন ২৬ রানের ইনিংস।

বিজ্ঞাপন

দলের বিপদে তরুণদের হাল ধরতে দেখে খুব খুশি তামিম। ২৭৬ রানের লড়াকু পুঁজি গড়ার পেছনে ছোট ছোট অবদানকেও তাই বেশ কৃতিত্ব দিচ্ছেন টাইগার অধিনায়ক।

‘একটা পর্যায়ে খুব বিপদে ছিলাম। একটা কথা সবসময় বলি, জুনিয়রদের পারফর্ম করতে হবে। এটা নিয়ে অনেক আলোচনা হয়। আমরাও বলেছি, কাল এক্ষেত্রে আদর্শ ম্যাচ ছিল। যেখানে লিটন বেশ দায়িত্ব নিয়ে একটা ইনিংস খেলেছে। আর সবসময় ১০০ বা ৫০ নিয়ে কথা বলা খুব সহজ। কিন্তু আমার কাছে ছোট ছোট অবদান খুব গুরুত্বপূর্ণ।’

‘আফিফের ইনিংসটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সে ওই ইনিংসটা না খেললে ২৭৬ রান করতে পারতাম না। ৩০-৪০ রান কম হতো। মিরাজের ২৬ রানের ইনিংসও গুরুত্বপূর্ণ ছিল। রিয়াদ ভাই (৩৩) আউট হওয়ার পর আরেকটি উইকেট পড়ে গেলে বিপদ হতো। আমার কাছে মনে হয় এই ছোট ছোট অবদানের কৃতিত্ব দেয়া গুরুত্বপূর্ণ, যেটা আমি পছন্দ করি।’

প্রথম ম্যাচে ১৫৫ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় তোলা বাংলাদেশের সামনে রোববার সিরিজ জয়ের হাতছানি। হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয়টি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায়।