চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ছেলে ও মেয়েকে হত্যার পর আটতলা থেকে লাফিয়ে দম্পতির আত্মহত্যা

ঘুমন্ত সন্তানদের গলা কেটে হত্যার পর আট তলার ফ্ল্যাট থেকে লাফিয়ে এক দম্পতি আত্মহত্যা করেছেন।

মঙ্গলবার ভোরে দিল্লির গাজিয়াবাদ এলাকায় এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে বলে জানায় এনডিটিভি।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, ওই দম্পতি কারখানা ব্যবসায় ব্যর্থ হয়ে আর্থিক সমস্যায় জর্জরিত ছিলো। এই ব্যর্থতা মেনে নিতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারে বলে ধারণা পুলিশের। মৃত্যুর আগে তাদের বাড়িতে একটি নোট রেখে যান।

জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা সুধীর কুমার বলেন, অ্যাপার্টমেন্ট কর্তৃপক্ষের ফোন পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই।  ফ্ল্যাটে গিয়ে ১৩ ও ১১ বছর বয়সী দুই শিশুর মরদেহ পাই। কিছু অর্থসহ একটি সুইসাইড নোটও পেয়েছি। নোটটির সঙ্গে কিছু অর্থ ছিলো, যা তাদের শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের জন্য রাখা হয় বলে লেখা ছিল।

পুলিশের ধারণা, আত্মহত্যার আগে তারা ঘুমন্ত ছেলে ও মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করতে পারেন।

একই সাথে লাফিয়ে পড়া আরেক নারীকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলছে পুলিশ।

ওই মহিলা নিহত ব্যবসায়ী পুরুষের ব্যবসার অংশীদার হতে পারেন। অন্য এক উৎস বলছেন, তিনি তার দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন।

অ্যাপার্টমেন্টের নিরাপত্তারক্ষী আজাজ করিম খান বলেন, ভোর ৫টার দিকে দুটি লাশ এবং একজন আহত মহিলা নিচে পড়ে থাকতে দেখি আমি। সঙ্গে সঙ্গে আমাদের অ্যাপার্টমেন্টের সুপারভাইজারকে জানিয়ে পুলিশে খবর দিই।