চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ছেলের কাণ্ডে হুমকির মুখে শাহরুখের ব্র্যান্ড ইমেজ!

টানা তিন দশক ধরে বলিউডে দাপট নিয়ে রাজ করছেন শাহরুখ খান। নিন্দার চেয়ে নন্দিতই বেশি হয়েছেন এই সুপারস্টার। তবে সম্প্রতি মাদক মামলায় ছেলে আরিয়ান খান গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকে ব্যাপক কটাক্ষের সম্মুখীন হচ্ছেন শাহরুখ। যার প্রেক্ষিতে ইতোমধ্যেই শাহরুখ খানকে দিয়ে করানো সব বিজ্ঞাপন প্রচার করা বন্ধ করে দিয়েছে ছোটদের শিক্ষা ও প্রযুক্তি সংক্রান্ত অ্যাপ ‘বাইজু’।

মূলত ‘বাইজু’ ছাড়াও আরও এক ডজন ব্র্যান্ডের অ্যাম্বাসিডর বলিউড বাদশা শাহরুখ। ছেলের মাদক কাণ্ডের পর থেকেই শাহরুখের ব্র্যান্ড ভ্যালুতে বড় রকমের ধাক্কা লাগতে পারে বলে মনে করছেন নেটিজেনদের একটি বড় অংশ। যদিও এড বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলছেন, ছেলের জন্য শাহরুখের ইমেজে যে দাগ লেগেছে তা নিতান্তই সাময়িক। এ বিষয়ে হিন্দুস্তান টাইমস কথা বলেছিল বেশ কিছু বিশেষজ্ঞর সঙ্গে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিষয়টি নিয়ে হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বিজ্ঞাপন বিশেষজ্ঞ প্রহ্লাদ কাক্কর বলেন যে, সবাই জানে এটা পুরোটাই ‘তামাশা’। অ্যাড স্থগিত করা হয়েছে নেহাতই বিতর্ক এড়ানোর জন্য। বাইজুসের পক্ষ নিয়ে প্রহ্লাদ বলেন যে, কাল তাদের বিরোধীরা বলতে পারে যে তোমার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসিডরের ছেলে মাদক নিচ্ছে, সেখানে তাঁর পিতা হিসেবে সে কি শিক্ষা দেবে? সেকারণেই পুরো অ্যাড ক্যাম্পেইন থেকে বাদ না দিয়ে আপাতত ওটা বন্ধ রাখা হয়েছে, কী প্রতিক্রিয়া হয় সেটা দেখার জন্য। প্রহ্লাদের মতে আরিয়ানকে জোর করে আটকে রাখা হয়েছে, সেটা সবাই বুঝতে পারছে। শেষ পর্যন্ত তো তাকে ছেড়েই দিতে হবে!

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও প্রযোজক প্রীতিশ নন্দী মনে করেন, আরিয়ানের বিষয়টি শাহরুখের ব্র্যান্ড ভ্যালু কমাবে না। তাঁর মতে অনেক দিন থেকেই শাহরুখের হিট কোন সিনেমা নেই তাই এমনিতেই তার কদর কিছুটা কমে গিয়েছে। এর সঙ্গে আরিয়ানের কোন যোগ নেই।

ট্রেড বিশেষজ্ঞ অতুল মোহন মনে করেন শাহরুখের এই খারাপ সময় কেটে গিয়ে খুব দ্রুত ভালো সময় আসবে। এতে কোন প্রভাব পড়বে না তার ব্র্যান্ডের ওপর। বরং খান পরিবার যে সহানুভূতি পাচ্ছে তাতে আরও শক্তিশালী হবে তার ব্র্যান্ড।

সব মিলিয়ে ইন্ডাস্ট্রির বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন খুব শিগগিরি আরিয়ানের পুরো বিষয়টি ধামাচাপা পড়ে যাবে। একই সাথে শাহরুখ বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে কতটা গ্রহণযোগ্য, সেটা তার ফিল্মের সাফল্যের ওপরই নির্ভর করবে। ছেলের কারণে তার ক্যারিয়ারে সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়া উচিত নয়। তবে বাস্তবে কী হয় সেটা ভবিষ্যতই বলবে।

বিজ্ঞাপন