চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ছিনতাই করতে গিয়ে গণধোলাইর শিকার এক পুলিশ

ছিনতাই করার সময় এক পুলিশ সদস্যকে হাতে নাতে ধরলো সাধারণ জনতা। শুধু তাই নয় ভালো উত্তম মধ্যমও পড়ে তার গায়ে। এরপর স্থানীয়রা মিলে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

ছিনতাই করার সময় আটক ওই পুলিশ সদস্যের নাম শরীফ রানা বলে জানিয়েছে সিলেটটুডে টুয়েন্টিফোরডটকম। সোমবার দুপুরের দিকে সিলেট নগরীর বারুতখানা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। শরীফ রানা সিলেট জেলা পুলিশের মোটরযান সেকশনের কনস্টেবল। তার আইডি নম্বর ৪৯৫।

স্থানীয়রা জানায়, সিলেটের ধোপাদিঘির পাড় এলাকার বাসিন্দা তামান্না আক্তার কলি তার ভাইয়ের সঙ্গে সোমবার দুপুরে ২ লাখ টাকা জমা দিতে ডাচ বাংলা ব্যাংকে যান। জমা শেষে তিনি ব্যাংক থেকে আরো ৬ লাখ ৯০ হাজার টাকা উত্তোলন করে জিন্দাবাজারের ব্রাক ব্যাংকে জমা দেয়ার উদ্দেশ্য রওনা দেন। বারুতখানা পয়েন্টে এসে পৌঁছলে একটি মোটর সাইকেলে করে এসে কলির হাতে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে শরীফ রানা।

বিজ্ঞাপন

এসময় কলির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ছিনতাইকারীকে ধরে ফেলেন জনতা। পরে গণধোলাই দিয়ে তাকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন।

কোতয়ালি থানার ওসি সোহেল আহমদ জানান, ছিনতাইয়ের অভিযোগে শরীফ রানা নামের এক পুলিশ সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তবে ছিনতাইকৃত টাকা শরীফের সাথে থাকা ব্যক্তি নিয়ে গেছে। ছিনতাইকৃত টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (গণমাধ্যম) রহমত উল্লাহ বলেন, পুলিশও আইনের উর্দ্ধে নয়। অপরাধী পুলিশ সদস্য হলেও তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন