চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

চুয়াডাঙ্গায় কলেজছাত্র হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন

Nagod
Bkash July

ঢাকার সাভার বিপিএটিসি কলেজের বাণিজ্য বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র চাঞ্চল্যকর জুবাইর মাহামুদ হত্যা মামলায় মুন্তাজ আলী ও হাসান নামে দুই ব্যক্তির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও চার আসামীকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

রোববার দুপুরে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-১ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক মো. বজলুর রহমান আসামীদের উপস্থিতিতে আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো: চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আলোকদিয়া গ্রামের মরহুম হারান মণ্ডলের ছেলে মুন্তাজ আলী ও পিতম্বরপুর গ্রামের গোলাম নবী শেখের ছেলে হাসান।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০০৯ সালের ১৩ এপ্রিল ঢাকার সাভারের কলেজ ছাত্র জুবাইর মাহামুদ স্কুল ছাত্রী পিয়ার প্রেমের টানে সদর উপজেলার আলোকদিয়া গ্রামে এলে তাকে অপহরণ করে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি এবং পরে জুবাইরকে হত্যা করে লাশ গুম করা হয়।

এ ঘটনায় জুবাইর মাহামুদের বাবা নুরুল হক চৌধুরী বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় সদর থানার এসআই সেকেন্দার আলী তদন্ত শেষে ৮ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। নজির আহমদ ও হারুন অর রশিদ পলাশ নামে দুই আসামী মামলা চলাকালীন সময়ে মারা যায়। বাকী ছয় আসামীর মধ্যে মুন্তাজ আলী ও হাসানের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড এবং প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। বাকী চার আসামী আমীর হোসেন, ইমান আলী, নুসরাত জাহান পিয়া ও কবির হোসেনের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদেরকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়।

এ মামলায় ১৮ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমাণ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত এ দণ্ডাদেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. গিয়াসউদ্দিনও এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

BSH
Bellow Post-Green View
Bkash Cash Back