চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চুক্তির ষোলোকলা পূর্ণ, পরবেন ৩০ নম্বর জার্সি

চুক্তির আনুষ্ঠানিকতাও সারা হয়ে গেছে। লিওনেল মেসি এখন কাগজে-কলমেই পিএসজির খেলোয়াড়। যেখানে পরবেন ৩০ নম্বর জার্সি। ৩৫ মিলিয়ন ইউরো বেতন পাবেন প্রতিবছরে।

বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার রাতে ফরাসি লিগ ওয়ানের জায়ান্ট, নেইমার-এমবাপেদের ক্লাব পিএসজির সঙ্গে দুই বছরের চুক্তিতে সই করেছেন বার্সেলোনার সাবেক অধিনায়ক। আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে তাতে আসছে দুই মৌসুমে পিএসজির জার্সিতে খেলতে দেখা যাবে। দুপক্ষ চাইলে সেটি আরও একবছর বাড়ানো সম্ভব।

‘আমি রোমাঞ্চিত, প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনে নতুন অধ্যায় শুরু করতে পেরে। এই ক্লাবের সব উচ্চাশা-পরিকল্পনাই আমার ফুটবলীয় আকাঙ্ক্ষার সাথে খাপ খেয়ে যায়।’ চুক্তির পর নতুন অভিযাত্রা নিয়ে এভাবেই বলেছেন মেসি।

‘আমি জানি কী দুর্দান্ত প্রতিভাবান এক স্কোয়াড ও কোচিংস্টাফ এই ক্লাবে আছে। তাদের পাশে থেকে ক্লাব ও সমর্থকদের জন্য অসাধারণ কিছু করতে আমি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। এবং, পার্ক ডে প্রিন্সেসে নামতে ব্যাকুল হয়ে আছি।’ যোগ করেন ৩৪ বছর বয়সী মহাতারকা।

পিএসজির মালিক-সভাপতি নাসের আল-খেলাইফি বলেছেন, আমি অভিভূত যে লিওনেল মেসি প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনকে বেছে নিয়েছেন। আমরা গর্বিত তাকে ও তার পরিবারকে প্যারিসে স্বাগতম জানাতে পেরে।

ইএসপিএন এফসি জানাচ্ছে, পিএসজিতে ৩০ নম্বর জার্সি পরে খেলবেন মেসি। যে নম্বরটি পরে তিনি বার্সেলোনায় ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। তখন কাতালানদের ১০ নম্বর জার্সি ছিল ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনালদিনহোর।

লিগ ওয়ানের নিয়ম অনুযায়ী অবশ্য ৩০ নম্বর জার্সি গোলকিপারের জন্য বরাদ্দ থাকে। কিন্তু বিশেষ অনুমতির জন্য লিগ কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়েছে পিএসজি।

মঙ্গলবার বার্সেলোনার বিমানবন্দর থেকে সপরিবারে ব্যক্তিগত বিমানে ওঠেন মেসি। বিমানে বসে স্ত্রী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাস্যোজ্জ্বল ফ্রান্স যাত্রার ছবি পোস্ট করেন। খানিক পর পিএসজির পক্ষ থেকে কিংবদন্তিকে বরণ করে নেয়ার একটি স্বাগতম ভিডিও পোস্ট করা হয়।

বিজ্ঞাপন

ডামাডোল চলতে থাকার কয়েকঘণ্টা আগেই বার্সেলোনায় দাঁড়িয়ে ভারাক্রান্ত আর শ্লেষমাখা কণ্ঠে মেসির বাবা ও এজেন্ট হোর্হে মেসির উচ্চারণ, হ্যাঁ, আজই পিএসজিতে সই করতে চলেছেন মেসি। তাতে চাউর হওয়া খবরটা নিশ্চিত হয়ে যায় ততক্ষণে।

আসলে মেসি যে পিএসজিতে খেলতে যাচ্ছেন সেটা অনেকটা ঠিক হয়ে যায় গত সপ্তাহে বার্সা তাকে নতুন চুক্তি না দেয়ার পরপরই। কিন্তু সেই যাওয়াটা কবে, কীভাবে সম্পন্ন হবে, সেটা নিয়ে আগ্রহ ছিল তুঙ্গে। মঙ্গলবার যার সবটুকুর দেখা মিলেছে।

প্যারিস পৌঁছে অপেক্ষমাণ সমর্থকদের ‘মেসি, মেসি’ ধ্বনির সামনে অনেকটা নির্ভরতার ছোঁয়া মাখানো ঢংয়ে হাত নেড়ে জবাব দেন মেসিও। এসময় তার পরনে ছিল সাদা টি-শার্ট, যাতে ‘দিস ইজ প্যারিস’ লেখা, যা পিএসজির স্লোগানও।

মেসির মেডিকেল হয়ে গেছে মঙ্গলবারই। আজ তাকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হবে পিএসজির একজন হিসেবে। হবে আনুষ্ঠানিক প্রেস মিটও। সেজন্য বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় চোখ রাখতে হবে পিএসজির মিলনকক্ষে।

তার আগেই যদিও পিএসজি তাদের ড্রেসিংরুমের ছবি যোগ করেছে মেসিকে স্বাগতম জানানো ভিডিওতে। যেখানে নেইমার ও এমবাপের মাঝের একটি লকার ফাঁকা। বুঝতে বাকি থাকে না কার জন্য। পিএসজির ভাষায় যেটি- নিউ ডায়মন্ড ইন প্যারিস।

সঙ্গে আইফেল টাওয়ারের সামনে মেসির ছয় ব্যালন ডি’অরের ছবি তো আছেই। ঐতিহাসিক দর্শনীয় জায়গাটিতেই মেসিকে পরিচয় করিয়ে দেয়ার কথা। যেখানে আনুষ্ঠানিকতা সারা হয়েছিল নেইমারেরও।

গত রোববার মেসি কান্নাভেজা বিদায়ী সংবাদ সম্মেলন সেরে ফেলেন বার্সেলোনায়। যার মাধ্যমে ন্যু ক্যাম্পে ২১ বছরের পথচলার ইতি নিশ্চিত হয়ে যায় তার। ১৩ বছর বয়সে ন্যু ক্যাম্পে এসেছিলেন মেসি। যুব দল ঘুরে দ্রুতই মূল দলের প্রাণভোমড়া হয়ে ওঠেন।

বার্সায় মেসি এনেছেন অনেক স্মরণীয় মুহূর্ত ও অবিশ্বাস্য সব সাফল্য। বার্সার ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি, রেকর্ড ৩৫ শিরোপা জিতেছেন। হয়েছেন রেকর্ড গোলদাতা। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৭৭৮ ম্যাচে ৬৭২ গোল রেখে গেলেন বার্সার অনার্স বোর্ডে।

গত ৩০ জুন বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। এরপর ফ্রি-এজেন্ট হয়ে যান এলএম টেন। সেসময় দেশের জার্সিতে কোপা আমেরিকা খেলায় ব্যস্ত ছিলেন। গত সপ্তাহে বার্সেলোনায় ফিরেছিলেন পাঁচ বছরের নতুন চুক্তি করতে। নতুন চুক্তিতে বসতে বেতনের ৫০ শতাংশ কমিয়ে নিতে রাজি হয়েছিলেন। এরপরও ক্লাব তাকে চুক্তি দিতে পারেনি। বলে দিয়েছে, লা লিগার ঠিক করে দেয়া বেতনসীমার মধ্যে নিজেদের খাপ খাওয়াতে পারছে না বার্সা। শেষে চোখের জলে বিদায় বলেছেন মেসি।

বিজ্ঞাপন