চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চিকিৎসা অবহেলায় মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুতে অভিযোগ করায় স্বজনদের উপর হামলা

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা অবহেলায় এক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর হয়েছে বলে দাবি করেছেন স্বজনরা। এ বিষয়ে অভিযোগ করায় রোগীর স্বজনদের অবরুদ্ধ করে মারধরের অভিযোগ উঠেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। এঘটনায় কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার সকালে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার হুগড়া এলাকার মুক্তিযোদ্ধা নুর-ই-খোদা রায়েজ অসুস্থ হয়ে পড়লে স্বজনরা তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এ সময় তাকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা সেবা না দিয়ে ফ্লোরে ফেলে রাখেন।

বিজ্ঞাপন

স্বজনরা অভিযোগ করে বলেন, কর্তব্যরত নার্স একটি ইনজেকশন দিতে হবে বলে তাদের কাছ থেকে চার হাজার টাকা দাবি করেন। টাকা দেওয়ার পর অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধাকে ইনজেকশন দেওয়া হলেও কোন ডাক্তার তাকে দেখেনি।

ওইদিন রাতেই মুক্তিযোদ্ধা রায়েজ মারা যান। পরে স্বজনরা চিকিৎসার অবহেলায় মৃতুর অভিযোগ তুলে হাসপাতালে ভাংচুর চালায়। এ সময় হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শফিকুল ইসলাম সজিব বেশ কয়েকজনকে সাথে নিয়ে এসে নিহত মুক্তিযোদ্ধার স্বজনদের ওপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন তারা। এ ঘটনায় কমপক্ষে পাঁচ জন আহত হয়।

একপর্যায়ে স্বজনরা মরদেহ নিয়ে বাড়ি যেতে চাইলে হাসপাতাললের আবাসিক মেডিকেল অফিসার বাধা দেয় বলেও জানান তারা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় আবাসিক মেডিকেল অফিসারসহ তার সহযোগীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান নিহতের স্বজনরা।

এ বিষয়ে হুগড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন তোফা জানান, তার সামনেই শফিকুল ইসলাম সজিব তার লোকজন নিয়ে নিহত মুক্তিযোদ্ধার স্বজনদের ওপর হামলা চালিয়ে মৃতদেহ নিতে বাধা দিয়েছে।

আবাসিক মেডিকেল অফিসার শফিকুল ইসলাম সজিব চিকিৎসার অবহেলার দাবিকে মিথ্যা বলে জানান। তিনি বলেন, রোগীর স্বজনরাই তাকে মারতে গেছেন।

বিজ্ঞাপন