চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চিকিৎসার সময়ও যৌন হয়রানি

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলীয় চিকিৎসকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আদালতে প্রমাণিত

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলীয় চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ১৮টি যৌন হয়রানির অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছে আদালত।

এসব অভিযোগের মধ্যে এই চিকিৎসকের অধীনে থাকা নারী রোগীদের অসম্মতিতে তাদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের অভিযোগও রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তবে চিকিৎসক শরীফ ফাত্তাহ (৬২) তার বিরুদ্ধে আনা ৩০টি অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর থেকে পরবর্তী ৬ মাস সময়ে তিনি এসব ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। গত ১৭ মে ফাত্তাহর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো পুনরায় আদালতে নেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

অভিযোগকারী নারীদের মধ্যে ১৬ জন অভিযোগের পক্ষে উপযুক্ত প্রমাণ দিয়েছেন। যাদের বয়স ১৯ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে বলে নিউজ ডটকম ডট এইউ জানিয়েছে।

তবে তিনি নিজের বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগকে ত্রুটিপূর্ণ, মিথ্যা এবং ‘‘একেবারে ভুল” বলে অভিহিত করলেও অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট এসব অভিযোগগুলোর ১৮টির সত্যতার প্রমাণ পেয়েছে।

এর মধ্যে ১৩টি অভিযোগ রয়েছে নারী রোগীদের অসস্মতিতে তাদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক এবং ৫টি অভিযোগ রয়েছে অশোভন আচরণের। আর ১২টি অভিযোগের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ফাত্তাহ তার যৌন তৃপ্তির জন্য নারী রোগীদের অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষার কথা বলতেন। তবে আদালতে তিনি বলেছেন, প্রত্যেকটি পরীক্ষায় ‘প্রয়োজনীয় চিকিৎসার উদ্দেশ্যে’ করা।