চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চিকিৎসকের দেয়া বিষণ্ণতা কাটানোর ওষুধ ঠিকমত খেতেন না সুশান্ত

সুশান্ত সিং রাজপুতের আকস্মিক মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ হয়ে গেছে বলিউড। সবার মনে একটাই প্রশ্ন, কেন আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন সুশান্ত। পুলিশ ধারণা করছে, বিষণ্ণতায় ভুগছিলেন তিনি।

মুম্বাই পুলিশ সুশান্তের ঘরে কোনো সুইসাইড নোট পায়নি। তবে সুশান্ত যে ক্লিনিক্যাল ডিপ্রেশনে ভুগছিলেন, তার কিছু প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ। বেশ কিছু অ্যান্টিডিপ্রেসেন্ট ওষুধ এবং মেডিক্যাল পেপার পাওয়া গেছে তার বান্দ্রার বাড়িতে।

বিজ্ঞাপন

কাগজপত্র থেকে জানা গেছে গত ৫-৬ মাস ধরে ক্লিনিক্যাল ডিপ্রেশনে ভোগা সুশান্ত হিন্দুজা হাসপাতালের এক চিকিৎসককে দেখাতেন। চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, বিষণ্ণতায় ভুগলেও ঠিকমত ওষুধ খেতেন না সুশান্ত।

বিজ্ঞাপন

রবিবার দুপুরে এই অভিনেতার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধারের পর মুম্বাই পুলিশ গণমাধ্যমে ‘আত্মহত্যা’ বলেই মন্তব্য করেছে। কিন্তু অন্য কথা বলছেন সুশান্তের মামা। হিন্দুস্তান টাইমসকে দেয়া এক মন্তব্যে তার মামা আরপি সিং অভিযোগ করে স্পষ্ট ভাষায় বলেছেন, ‘এটি আত্মহত্যা নয়। এটা ঠাণ্ডা মাথায় করা খুন। আমি চাই গোটা বিষয়ের পূর্ণ তদন্ত হোক। সুশান্ত আত্মহত্যা করতে পারে না।’

তদন্তে দেখা গেছে সুশান্ত সর্বশেষ ডায়াল করেছিলেন টিভি অভিনেতা মহেশ শেঠিকে। কিন্তু মহেশের কাছে কলটি যায়নি। সুশান্ত ও মহেশ একটি টিভি শোতে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন।