চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চালক ছাড়াই ট্রেনের উল্টোযাত্রা

একটু পড়েই ছাড়বে ট্রেন। যাত্রীরা ছিলেন এই অপেক্ষায়। ট্রেন ছাড়লো ঠিকই তবে চললো পেছনের দিকে; তাও আবার চালক ছাড়া! বিষয়টি যখন যাত্রীদের নজরে এলো তখনই শুরু হলো তাদের চিৎকার চেঁচামেচি। চলছে ট্রেন; চলছে যাত্রীদের চেঁচামেচি। এভাবে ২৬ কিলোমিটার চলার পর থামলো সেই ট্রেন। আর সেটি থামালেন চালক নয়, ট্রেনের টিকেট কালেক্টর (টিটি)। তার নাম আনোয়র হোসেন।

এটা কোনো সিনেমা বা নাটকের দৃশ্য নয়, রাজবাড়ী রেল স্টেশনে রোববার সকালে ঘটে এ ঘটনা। আন্তঃজেলা রাজবাড়ী থেকে ফরিদপুরের মধ্যে চলে ৭৮৩ ট্রেনটি।সকাল ৮টা ১০ মিনিটে ৬টি বগির প্রায় ১’শ জন যাত্রী নিয়ে ফরিদপুরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু অপেক্ষায় ছিল। চালক গিয়েছিলেন চা খেতে। হঠাৎ করেই ট্রেনটি উল্টো পথে চলা শুরু করে।এক সময় যাত্রীরা দেখতে পান চালকের আসনে কেউ নেই। অথচ ট্রেনটি চলছেই। যাত্রীদের চিৎকার চেঁচামেচি শুনে ছুটে আসেন টিটি । তিনি প্রতিটি বগির চেইন টেনে ভেকম বক্সের বাতাস ছেড়ে দেন। এতে রক্ষা পান শতাধিক যাত্রী।

তবে এরই মধ্যে সেটি ২৬ কিলোমিটার রেলপথ অতিক্রম করেছে। রাজবাড়ী-পেরাদাহ রুটের পাংশা বাবুপারা ব্রীজের সামনে থামানো হয় ট্রেনটি। ট্রেনটি থামার পর দেখা যায় ইঞ্জিনে কোনো চালক নেই। টিকিট কালেক্টর পরে ইঞ্জিনটিও বন্ধ করতে সক্ষম হন।

Advertisement

রাজবাড়ি স্টেশনে ইঞ্জিন চালু অবস্থায় চালক ও সহকারি চালক চা পান করতে স্টেশনে নামলে ট্রেনটি উল্টোদিকে চলে যায় বলে কর্মকর্তারা প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছেন।

এঘটনায় বাংলাদেশ রেলওয়ে পাকশী প্রাথমিকভাবে চালক এল এম (লোকো মাস্টার) মোহাম্মদ আলী,সহকারী চালক (এ এল এম) ফয়সাল, ট্রেনপরিচালক (গার্ড) সুভাষ চন্দ্রকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে গ্রেফতার করা হয়েছে।  ডিটিও পাকশীকে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

রাজবাড়ীরেলস্টেশনের মাস্টার মোঃ কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেজানান, আন্তঃজেলা ট্রেনটি সকাল ৮ টা ১০ মিনিটে ফরিদপুরেরউদ্দেশ্যে ছেরে যাবার কথা ছিলো। তবে চালক, সহকারী চালক ও ট্রেন পরিচালকছাড়াই ভুলক্রমে উল্টো দিকে ছেড়ে চলে যায়।

এ ঘটনার পরপরই রাজবাড়ীর পরবর্তী রেল স্টেশন কালুখালীর স্টেশন মাষ্টারকে অবহিত করাহয়। রেলওয়ে কন্ট্রোল পাকশী অফিসেও জানানো হয়। চালকের অসাবধানতার কারণে এমনটি হয়েছে বলে তিনি প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেনরাজবাড়ী রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শ্রী সুনীল কুমার ঘোষ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেজানান, ছেড়ে যাওয়া ট্রেনটির চালক মোহাম্মদ আলীকে ঐ ট্রেনটি আনতে পাংশায় পাঠানোহয়েছে। এরা ফিরে আসলে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।