চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলো সরকার

আপতত কাঁচা চামড়া রপ্তানির সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে সরকার। পাশাপাশি আড়ৎদাররা ট্যানারি মালিকদের কাছে চামড়া বিক্রি করতেও রাজি হয়েছেন। তবে তাদের পাওনা ৪শ কোটি টাকা উদ্ধারে এফবিসিসিআইকে মধ্যস্থতা করার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

রোববার বিকেলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সরকার, ট্যানারি মালিক ও আড়ৎদারদের ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত হয়।

বিজ্ঞাপন

এ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান ও শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন উপস্থিত ছিলেন। বিদেশ সফরে থাকায় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

কোরবানির দিন বিক্রি করতে না পেরে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা এক লাখের বেশি কাঁচা চামড়া নষ্ট করে ফেলেন। কেউ চামড়া নদীতে ফেলে দেন। কেউ মাটিতে ফুঁতে ফেলেন আবার কেউ রাস্তায় চামড়া রেখে চলে যান। এমন পরিস্থিতিতে ওই দিনই কাঁচা চামড়ার উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করতে রপ্তানির সিদ্ধান্তের কথা জানায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এরপর সরকারের অনুরোধে ট্যানারি মালিকদের শনিবার থেকে কাঁচা চামড়া কেনার কথা বলেন। কিন্তু আড়ৎদাররা ট্যানারি মালিকদের কাছে বকেয়া ‘শত শত কোটি টাকা’ পাওনার অভিযোগ তুলে কাঁচা চামড়া বিক্রি বন্ধ রাখার ঘোষণা দেন। এতে নতুন করে সঙ্কট তৈরি হয়।

এমন প্রেক্ষাপটে রোববার চামড়া সংকটে সমাধানে বৈঠকে ট্যানারি মালিক ও আড়তদারসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে নিয়ে বৈঠকের উদ্যোগ নেয় সরকার।

বিজ্ঞাপন

বৈঠক শেষে চামড়া রপ্তানির বিষয়ে জানতে চাইলে শিল্পমন্ত্রী বলেন, অবস্থা বুঝে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এটা কাঁচামাল, রপ্তানি করা একটা প্রক্রিয়ার ব্যাপার। বললেই রপ্তানি করা যাবে না। তবে সরকার যদি প্রয়োজন মনে করে তখন চামড়া রপ্তানি করা হবে। অবস্থা বুঝে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

তিনি বলেন, দেশ যখন সম্ভাবনার দিকে এগিয়ে যায় তখন তা ব্যাহত করতে একটা চক্র কাজ করে। বিভিন্ন জেলা থেকে আগত প্রতিনিধিরা জানিয়েছে, ১ কোটি চামড়ার মধ্যে প্রতিবছর শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ চামড়া নষ্ট হয়। এবার যেহেতু গরম পড়েছে, সেজন্যই ১০ হাজার চামড়া নষ্ট হতে পারে।

মন্ত্রী বলেন, চামড়ার বিষয়ে নীতিমালা হচ্ছে, বৈঠকে বিষয়টির সমাধান হয়েছে। আগামী ২২ তারিখ তারা বসে সিদ্ধান্ত নেবে। এটা গতানুগতিক, এখানে তেমন কোনো সমস্যা নেই। আজকেই সব সমাধান হয়েছে। চামড়া কেনা ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে।

সালমান এফ রহমান বলেন, কোরবানিতে ১ কোটি চামড়া হয়। এবার তার মধ্যে ১০ হাজার চামড়া নষ্ট হয়েছে, মাটিতে (মাটিতে পুঁতা) যে চামড়া গেছে তাসহ। প্রতিবছর কিন্তু ৫ হাজার চামড়া এমনি নষ্ট হয়। এবার মূলত বেশি গরমের জন্যই চামড়া বেশি নষ্ট হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘জেলা থেকে আগত প্রতিনিধিরা জানিয়েছে, চিটাগং (চট্টগ্রাম) ও সিলেটে বেশি চামড়া নষ্ট হয়েছে। নাটোরে নষ্টই হয়নি। আর কুষ্টিয়ায় কিছু নষ্ট হয়েছে।

বাংলাদেশ হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিএইচএসএমএ) সভাপতি দেলোয়ার হোসেন বলেন, আগামী ২২ আগস্ট আমরা বসব। এফবিসিসিআইকে সমস্যা সমাধানের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা দুইপক্ষের সঙ্গে বসে সমাধান করে দেবে। যে সমস্যা ট্যানারির মধ্যে রয়ে গেছে, তা সমাধানে মন্ত্রী ও উপদেষ্টারা কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন।

এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ২২ আগস্ট সংশ্লিষ্ট ফিনিস লেদার অ্যাসোসিয়েশন ও টানার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বসে আড়ৎদারদের পাওনা আদায়ের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Bellow Post-Green View