চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চাকরির প্রলোভনে কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ

নরসিংদী প্রতিনিধি:
নরসিংদীর শিবপুরে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে এক কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার দিবাগতরাতে উপজেলার সৃষ্টিগড় হাজীবাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীকে শনিবার বিকালে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ রাকিব মিয়া (২০) নামে এক যুবককে আটক করেছে।

রাকিব শিবপুর উপজেলার সৃষ্টিগড় গ্রামের রবিউল্লাহর ছেলে। এ ঘটনায় আরও দুই অভিযুক্ত একই এলাকার শহিদ মিয়ার ছেলে আরিফ (২৫) ও অজ্ঞাতনামা এক গাড়িচালক পলাতক রয়েছে।

নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রী ও পুলিশ জানায়, ফোনে পূর্ব পরিচয়ের সূত্রধরে অভিযুক্ত আরিফ একটি শিল্প প্রতিষ্ঠানে চাকরি দেয়ার কথাবলে ওই ছাত্রীকে ফোনে ডেকে নিয়ে আসে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার বিকালে ওই কলেজছাত্রী সৃষ্টিগড় এলাকায় আসার পর তাকে একটি মাইক্রোবাসে উঠিয়ে নেয় আরিফ ও তার দুইসহযোগী রাকিব ও অজ্ঞাতনামা এক যুবক।

তাকে বিভিন্নস্থানে গাড়ীতে ঘুরিয়ে সন্ধ্যার পরে অপরিচিত একটি জায়গায় নিয়ে যেতে চাইলে ওই ছাত্রী চিৎকার করে। এসময় তাকে মারধরর করা হয়। পরে হাজীবাগান এলাকার একটি নির্জন জঙ্গলে তাকে পালাক্রমে অত্যাচার চালানো হয়।

পরে ওই ছাত্রী কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে স্থানীয় একজনের সহায়তায় শিবপুর মডেল থানায় আসে। পরে প্রথমে তাকে শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং শেষে নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মাহমুদুল বাশার বলেন, মেয়েটির ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়েছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। আগামিকাল (রোববার) গাইনী বিভাগের চিকিৎসক আরো পরীক্ষা করবেন।
শিবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মুমিনুল ইসলাম বলেন, রায়পুরার এক তরুণীকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে তবে এ ঘটনায় শনিবার সন্ধ্যা ৬ পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি।
Bellow Post-Green View