চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আবারও স্পেনের কোচ এনরিকে

লুইস এনরিকেকে আবারও স্পেন জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব নেয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল স্প্যানিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। বার্সেলোনার সাবেক কোচ আপত্তিও করেননি। চাকরি ছাড়ার আট মাসের মাথায় আবারও লা রোজাদের দায়িত্বে ফিরলেন ৪৯ বছর বয়সী কোচ! সামলাবেন ২০২০ ইউরোয় সার্জিও রামোসদের গুরুর দায়িত্ব।

গত আগস্টে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে এনরিকের নয় বছর বয়সী কন্যা জানা। ক্যান্সারে আক্রান্ত কন্যার পাশে থাকতে ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে গত মার্চে স্পেন জাতীয় দল থেকে পদত্যাগ করেন এনরিকে। মাত্র হাতেগোনা কয়েকজন ছাড়া বাইরের সবার কাছে অজানা ছিল তার চাকরি ছাড়ার কারণ। যাদের মাঝে ছিলেন ফেডারেশনের সভাপতি লুইস রুবিয়ালেসও।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সেসময়ই রুবিয়ালেস জানিয়েছিলেন, এনরিকের দুঃসময়ে পাশে থাকবেন। বলেছিলেন, এনরিকের জন্য সবসময়ই খোলা থাকবে স্পেন জাতীয় দলের দরজা।

নিজের করা প্রতিজ্ঞা পূরণে তাই এনরিকেকে আবারও পুরনো পদে ফিরে আসার জন্য প্রস্তাব দেন রুবিয়ালেস। এনরিকে ফিরে আসায় জায়গা হারালেন রবের্তো মরেনো। আগে এনরিকের সহকারী কোচ ছিলেন তিনি। মূল কোচ সরে যাওয়ায় লা রোজাদের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন। মরেনোর অধীনে সাত ম্যাচের সবগুলোতেই জয় পেয়েছে ২০১০ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা, টিকিট পেয়েছে ২০২০ ইউরোর মূলপর্বেও।

এমন সাফল্যের পরও জায়গা হারানোয় মরেনোর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা হয়েছে বলে মনে করছেন তার কাছের মানুষরা। অবশ্য তা নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছেন না রুবিয়ালেস। এনরিকেকে তিনি আখ্যা দিয়েছেন একজন সত্যিকারের নেতা হিসেবে, ‘লুইস এনরিকে যে পরিস্থিতির ভেতর দিয়ে গিয়েছে তা আর কোনো বাবাকে যেন না পেতে হয়। এখন থেকে ভবিষ্যতের সমস্ত পরিকল্পনার দায়িত্বে থাকবেন তিনি। যা চলবে কাতার বিশ্বকাপ পর্যন্ত। আমরা প্রতিজ্ঞা করেছিলাম তার জন্য স্পেনের দরজা খোলা থাকবে এবং আছে।’

Bellow Post-Green View