চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চরকিতে চঞ্চল, জি-ফাইভে মোশাররফ

বাড়ছে ওটিটির দাপট। প্রেক্ষাগৃহে নতুন সিনেমা মুক্তি পাক বা না পাক, নিয়মিত বিরতিতে ওটিটিতে আসছে দেশীয় কন্টেন্ট। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার রাত থেকে দর্শক দেখতে পারছেন দেশের দুই তারকা অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী ও মোশাররফ করিম অভিনীত দুটি আলাদা কন্টেন্ট!

একটি স্ট্রিমিং হচ্ছে দেশীয় প্লাটফর্ম চরকিতে, এবং অন্যটি ভারতীয় প্লাটফর্ম জি-ফাইভে। এরমধ্যে চরকির জন্য চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত ‘মুন্সিগিরি’ নামে ওয়েব ফিল্মটি নির্মাণ করেছেন আয়নাবাজি খ্যাত নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরী, আর মোশাররফ করিমকে নিয়ে জে-ফাইভের জন্য ‘দ্য ব্রোকার’ বানিয়েছেন নির্মাতা আবু হায়াত মাহমুদ।

মুন্সিগিরি ওয়েব ফিল্মটি শিবব্রত বর্মনের ‘মৃতেরাও কথা বলে’ উপন্যাস থেকে নির্মিত। দেশীয় গোয়েন্দাভিত্তিক এই ফিল্মটির দৈর্ঘ্য ৮৫ মিনিট। পুরোদস্তুর পুলিশের একজন গোয়েন্দা চরিত্র মাসুদ মুন্সি হিসেবে দেখা গেছে চঞ্চল চৌধুরীকে। যিনি একজন সরকারি কর্মকর্তার মৃত্যু রহস্যের তদন্তে দায়িত্বরত। মৃত্যু রহস্য ঘাটতে গিয়ে নানামুখি জটের মুখে পড়েন চঞ্চল।

বিজ্ঞাপন

‘মুন্সিগিরি’তে চঞ্চল ছাড়াও অভিনয় করেছেন গাজী রাকায়েত, শহীদুজ্জামান সেলিম, পূর্ণিমা, আহসান হাবিব নাসিম, শবনম ফারিয়া প্রমুখ। বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় চরকিতে মুক্তির পর ‘মুন্সিগিরি’ নিয়ে দর্শকদের মিশ্রপ্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে। অনেকেই অমিতাভ রেজা-চঞ্চল জুটির কাজটি দেখে হতাশ হয়েছেন। আবার অনেকে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এমন গোয়েন্দা গল্প নির্মাণের প্রশংসাও করেছেন।

অন্যদিকে জি-ফাইভে মুক্তি পাওয়া মোশাররফ করিম অভিনীত ‘দ্য ব্রোকার’ প্রশংসা পাচ্ছে দর্শকের কাছে। বিশেষ করে এই কন্টেন্টটির গল্প এবং মোশাররফ-অর্ষার অভিনয়ের প্রশংসা করছেন সাধারণ দর্শক।

‘দ্য ব্রোকার’ মূলত একজনের ইচ্ছের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেয়া এবং তার পরিণতি ভোগ করার গল্প। গল্পটি দেশ-বিদেশে সবাই পছন্দ করবেন বলে আত্মবিশ্বাসী নির্মাতা আবু হায়াত মাহমুদ।

বিজ্ঞাপন