চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চকরিয়া থানায় মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানে সংরক্ষিত আসন

‘মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার পুলিশ হবে জনতার’ এ স্লোগানকে ধারণ করে মুজিব বর্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান জানাতে কক্সবাজারের চকরিয়া থানায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের জন্য নিজের কক্ষে সংরক্ষিত আসন স্থাপন করেছেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ওসি হাবিবুর রহমান।

কক্সবাজার জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় থানা চকরিয়া। প্রতিদিন থানায় নানা কাজে আসেন সাধারণ মানুষের পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধারাও। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মো. হাবিবুর রহমান বলেন: আমি এখানে যোগ দেয়ার পর দেখেছি প্রতিদিন থানায় নানা কাজে অনেক মানুষ আসেন, তারমধ্যে মুক্তিযোদ্ধারাও আসেন। সাধারণ মানুষের ভিড়ে অনেক সময় এই মুক্তিযোদ্ধাদের সমস্যা হয়।

বিষয়টি দেখার পর একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে মুজিব বর্ষের শুরুতেই আমার কক্ষে কাঠের তৈরি সুন্দর একটি চেয়ার দিয়ে থানায় আগত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সংরক্ষিত আসন করেছি। আমি এখানে যোগদানের পর থানার সকল কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সব ফোর্স দেশ নির্দেশ দিয়েছি, যেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযথ সম্মান দেয়া হয়। থানায় তার একটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে ১ জানুয়ারি থেকে আমার কক্ষে তাদের জন্য একটি নির্ধারিত সংরক্ষিত আসন স্থাপন করি। যে চেয়ারটিতে শুধুমাত্র সম্মানিত মুক্তিযোদ্ধারাই বসবেন।

এই মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আরো বলেন: ডিউটি অফিসারকে নির্দেশ দেওয়া আছে, কোনো মুক্তিযুদ্ধা আসলে যেন সরাসরি আমার কক্ষে নিয়ে আসেন। কারণ আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে এটা আমার নৈতিক দায়িত্ব বলে মনে করেছি।

চকরিয়া থানায় মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সংরক্ষিত আসন স্থাপন করার বিষয়টি সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছে। এ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধারাও খুব খুশি।

বিজ্ঞাপন

কক্সবাজার জেলা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান বলেন: চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমাদের সম্মান দেওয়ার জন্য সংরক্ষিত আসন স্থাপন করার বিষয়টি জেনে আমি ও আমার সহযোদ্ধারা খুব খুশি হয়েছি।

মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমদ বলেন: দেশের জন্য জান বাজি রেখে যুদ্ধ করেছি। এখন দেশের কাছ থেকে আমরা তেমন কিছু চাই না। যদি একটা সম্মান পাই তাহলে খুব ভালো লাগে। চকরিয়া থানার বিষয়টি জানার পরে অনেক ভালো লেগেছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আলী মাস্টারের সন্তান কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন বলেন: একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে নয় এদেশের নাগরিক হিসেবে সবসময়ই মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়ার চেষ্টা করেছি। চকরিয়া থানায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের জন্য সংরক্ষিত আসন করার মধ্য দিয়ে আমরা পুরো জেলা পুলিশ সম্মানিত হয়েছি।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনসহ জেলা পুলিশে অনেক মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রয়েছেন। চকরিয়া থানার এই উদ্যোগ তাদের সবার জন্য বিরল সম্মান বয়ে এনেছে।

শেয়ার করুন: