চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঘুরে আসুন টুকটুকে লাল শাপলার বিলে

আসাদুজ্জামান বাবুল: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মভূমি গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার আশেপাশের বিভিন্ন এলাকার বিল লাল শাপলায় ভরে গেছে। এসব বিলের যেদিকে চোখ যায়, দেখা যায় শুধুই লাল আর লাল।

জোয়ারিয়া, পাথরঘাটা, গোপালপুর, মিত্রডাঙ্গা, বালাডাঙ্গা ও বন্যাবাড়ীসহ আশপাশ এলাকার প্রতিটি বিলে ফুটেছে অসংখ্য লাল শাপলা। সেই শাপলা দেখতে প্রতিদিন হাজারো মানুষের পদচারণায় মুখরিত টুঙ্গিপাড়ার লাল শাপলার এসব বিল।

বিজ্ঞাপন

গোপালগঞ্জ জেলা শহর থেকে মাত্র ২২ থেকে ২৩ কিলোমিটার পূর্ব দিকে সরেজমিনে এসব বিলে গিয়ে দেখা যায়, কেউবা নৌকা চড়ে, কেউবা কলা গাছের ভেলায় করে আবার কেউবা তালের ডিঙ্গি করে আবার কেউবা পায়ে হেঁটে বিলের পাড় দিয়ে লাল শাপলার দৃশ্য উপভোগ করছেন।

বিজ্ঞাপন

কেউ যদি ঢাকা থেকে এসব বিলের লাল শাপলা দেখতে চান, তাহলে বাসে করে প্রথমে টুঙ্গিপাড়ার পাটগাতী বাসস্ট্যান্ডে নামতে হবে। তারপর ভ্যানে বা ব্যাটারি চালিত অটো রিকসা করে সোজা চলে যেতে হবে লাল শাপলার বিলে। এখানে ভাড়া খুবই কম, সময়ও কম লাগে।

রাতে থাকা ও খাবার জন্য রয়েছে সুন্দর ব্যবস্থা। গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা কাজা রুমা পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বেড়াতে গিয়েছিলেন বিলে।

তিনি বললেন, মনোরম পরিবেশে কেউ যদি পরিবার পরিজন নিয়ে একদম নিরিবিলি বেড়াতে চান তাহলে আজই আসুন টুঙ্গিপাড়ার লাল শাপলার বিল ছাড়াও শেখ রাসেল শিশু পার্ক, জাতির পিতার সমাধিসৌধ ও পাটগাতী সেতুসহ লেকপাড়ও রয়েছে।মো.হানিফ সিকদার নামের আরেক ব্যক্তি বিল এলাকায় বেড়িয়ে বললেন, এমন সুন্দর পরিবেশ কেউ যেন মিস না করে। শহরের চাপাইল সেতু, লেকপাড়ের শেখ রাসেল শিশুপার্ক ও রেললাইন দেখার জন্য পরিবার পরিজন নিয়ে বেড়ানোর ভালো জায়গা।শেখ মুশফিকুর রহমান কলিন্স নামের আরেকজন বললেন, যোগাযোগ ব্যবস্থা আর পর্যাপ্ত নৌকা রাখা প্রয়োজন।

বিলে ঘুরতে আসা পর্যটকদের নিরাপত্তায় রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

Bellow Post-Green View