চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গ্রাম্য সালিশে মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যায় গ্রেপ্তার ২

টাঙ্গাইলের বাসাইলে গ্রাম্য সালিশে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ খাঁন (৬৫) কে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় আজ নিহতের ছেলে হাবিব খাঁন বাদী হয়ে ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে মোঠরা এলাকা থেকে লিটন (৪০) ও উজ্জল (৩৮) নামে দু’জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কয়েক দিন যাবৎ বীর মুক্তিযোদ্ধা লতিফ খাঁনের সাথে প্রতিবেশী আবু খাঁনের পরিবারের পুকুরের মাছ ধরা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এ বিষয়ে মিমাংসার জন্য শুক্রবার বিকালে স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান খানের বাড়িতে সালিশি বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সালিশের এক পর্যায়ে কথা কাটাকাটির জেরে আবু খাঁনের পক্ষের লোকজন বীর মুক্তিযোদ্ধা  লতিফ খাঁনকে পিটিয়ে ও গলাটিপে আহত করেন। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধার ছেলে হাবিব খাঁন বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। শনিবার মামলার এজাহার ভুক্ত লিটন ও উজ্জলকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে হাবলা ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়ার্ড সদস্য শাহজাহান খান বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষকে নিয়ে সালিশ বসা হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষই ক্ষিপ্ত হয়ে সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় দুই পক্ষেরই কয়েকজন আহত হয়। ওই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়। ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক।

বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ খাঁন খুনের ঘটনায় বাসইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলার আসামী দুই জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলেও তিনি জানান।

বিজ্ঞাপন