চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গোল করেই জুভ জার্সিতে প্রথম ট্রফি জিতলেন রোনালদো

জুভেন্টাসের জার্সিতে প্রথম ট্রফি জিতলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। বুধবার রাতে ইতালিয়ান সুপারকোপার ফাইনালে তার করা গোলেই জুভরা হারায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এসি মিলানকে। ইতালির ঘরোয়া টুর্নামেন্ট হলেও দেশের বাইরে অনুষ্ঠিত হয় শিরোপার লড়াই। এ বছর যার দশম আসর বসেছিল সৌদি আরবের জেদ্দায়। রেকর্ড অষ্টমবারের মতো শিরোপা জিতল তুরিনের ‘ওল্ড লেডিরা’।

ম্যাচে ফেভারিট হিসাবেই শুরু করেছিলেন রোনালদোরা। বর্তমানে তেমন ছন্দে নেই মিলান। অন্যদিকে রোনালদো আসার পর ধারে ও ভারে অনেকটাই এগিয়ে গেছে জুভেন্টাস। ম্যাচে যার প্রতিফলন শুরু থেকেই লক্ষ্য করা যায়।

অবশ্য শুরুতে পালটা চাপ দেয় মিলানও। সুযোগ পেয়েছিলেন রোনালদো, কিন্তু তার শট ছিল পোস্টের বাইরে। অন্যদিকে মিলানের কাটরোনে, কালহানোগলু সুযোগ তৈরি করলেও গোল পাননি।

দ্বিতীয়ার্ধে বেশিরভাগটাই জুভেন্টাসময়। ট্রফি জয়ের লক্ষ্যে মরিয়া হয়ে ওঠে তারা। ফল ৬১ মিনিটে রোনালদোর গোল। পিয়ানিচের ক্রস থেকে হেডে দুর্দান্ত গোল করে দলকে এগিয়ে দেন সিআর সেভেন। যা শেষমেশ ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেয়। মৌসুমের এটি রোনালদোর ১৬তম গোল।

Advertisement

অন্যদিকে খেলায় আরও খানিকটা পিছিয়ে পড়ে মিলান। কারণ তাদের খেলোয়াড় ফ্রাঙ্ক কেসিই লালকার্ড দেখে মাঠ থেকে বেড়িয়ে যেতে বাধ্য হন। সাবেক জুভেন্টাস তথা বর্তমান মিলান স্ট্রাইকার গঞ্জালো হিগুয়েন নামলেও তেমন প্রভাব ফেলতে পারেননি।

শিরোপা জেতার পর ইতালিয়ান মিডিয়াকে রোনালদো বলেন, ‘এটা খুবই কঠিন ম্যাচ ছিল, বিশেষ করে এতো গরমের কন্ডিশনে।’

তারপরই নিজের খুশির কথা জানান রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক সুপারস্টার, ‘আমার লক্ষ্য ছিল ২০১৯ সালটা ট্রফি দিয়ে শুরু করার। জুভেন্টাসের হয়ে প্রথম ট্রফি জিততে পেরে আমি বেজায় খুশি।’

এক ট্রফিতেই যে সন্তুষ্ট নন সেটাও জানাতে ভুল করেননি পর্তুগিজ তারকা, ‘এটা সবে শুরু, এটাকে ধরে আমরা সামনের দিকে এগোবো। এটা জেতার পর এখন আমাদের কাজ পরের ট্রফিটা জিততে কঠিন পরিশ্রম করা।’