চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Channeliadds-30.01.24Nagod

গুরু গার্দিওলার ম্যান সিটির কাছে শিষ্য মেসির বার্সেলোনার হার

ন্যু ক্যাম্পে আগের ম্যাচে হ্যাটট্রিক করে গুরু পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটিকে ধসিয়ে দিয়েছিলেন শিষ্য লিওনেল মেসি। সেদিন শিষ্য আটকানোর কোনো কৌশলই কাজ দেয়নি গার্দিওলার। তবে ইতিহাদে শিষ্যকে পুরোপুরি না আটকাতে পারলেও বার্সেলোনাকে আটকে দিয়েছেন পেপ। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের হাইভোল্টেজ ম্যাচে কাতালানদের ৩-১ গোলে হারিয়ে দিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি।

রাজকীয় স্টাইলেই শুরুটা করেছিল বার্সেলোনা। প্রথমার্ধের শুরুতে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে বার্সা। তবে পাল্টা আক্রমণে শেষ পর্যন্ত মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের নাস্তানাবুদ করে গার্দিওলার ম্যানসিটি।

শুরুটা করেছিলেন সেই মেসিই। ২১ মিনিটে আগের ম্যাচে হ্যাটট্রিক করা মেসির পা থেকেই আসে প্রথম গোল। খেলার গতির বিপক্ষেই গোলের মুখ খুলেন নেইমার-মেসি জুটি। প্রথম আক্রমণ করেন মেসির জাতীয় দলের সতীর্থ ও সেরা বন্ধু সার্জিও আগুয়েরো। বার্সার গোল লক্ষ্য করে শটও নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেই শট আটকে দেন আগুয়েরোর জাতীয় দলের আরেক সতীর্থ হাভিয়ের মাসচেরানো।city

নিজেদের বক্স থেকেই শুরু বার্সার আক্রমণ। মাসচেরানোর আটকে দেওয়া বল প্রায় মাঝমাঠ থেকে নিয়েই দৌঁড় শুরু করেছিলেন নেইমার। জায়গা পরিবর্তন করে ততক্ষণে মাঝমাঠ দৌঁড় থেকে শুরু করেন মেসিও। ম্যানসিটি বক্সের ঠিক বাঁদিক থেকেই মেসিকে লক্ষ্য করে বল রেখেছিলেন নেইমার। সিটি ডিফেন্ডারদের মাঝখান দিয়ে বল সোজা যায় মেসির পায়ে। বাঁ পায়ে বল ধরে কয়েক সেকেন্ড সময় নেয়ায় গোল ছেড়ে বেরিয়ে আসেন সিটি গোলকিপার কাবালেরো। বেরিয়ে আসা গোলকিপারের পাস দিয়েই ঠান্ডা মাথায় বাঁ পায়ের টোকায় বল পাঠান সিটির গোলে।

Reneta April 2023

২১ মিনিটে হজম করা গোলের পাল্টা আসে ৩৯ মিনিটে। আগুয়েরো থেকে স্টার্লিংয়ের পা হয়ে বল পৌঁছেছিল জার্মান মিডফিল্ডার গুনদোগানের কাছে। সহজ বল পেয়ে ভুল করেননি গুনদোগান।

পরের মুহূর্তেই আবার সুযোগ চলে এসেছিল ম্যানসিটির সামনে। কিন্তু অল্পের জন্য সেই সুযোগ নষ্ট করেন ফার্নান্দো। শুরু থেকেই গোলের সামনে ছটফট করছিলেন স্টার্লিং। ম্যাচ শুরুর ১০ মিনিটের মধ্যেই প্রায় পেনাল্টি পেয়ে গিয়েছিল সিটি। যদিও রেফারি দেননি। দ্বিতীয়ার্ধেও পেনাল্টির দাবি ওঠে।city-barca

দ্বিতীয়ার্ধে ৫১ মিনিটে দুর্দান্ত ফ্রি-কিকে স্বাগতিকদের এগিয়ে  দেন ডি-ব্রুইন। ম্যাচের ৭৪ মিনিটে ডি-ব্রুইনের বাড়ানো বল থেকে জেসাস নাভাসের ক্রস বল পেয়ে গোল করে ব্যবধান বাড়ান গুনদোয়ান।

ড্র করলেই পরের পর্ব নিশ্চিত হয়ে যেত বার্সার। কিন্তু হেরে ৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে নেমে যেতে হল কাতালানদের। ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে এল ম্যানচেস্টার সিটি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অন্য ম্যাচে এদিন লেওয়ানোডস্কির জোড়া গোলে বায়ার্ন মিউনিখ ২-১ গোলে পিএসভিকে, আর্সেনাল ৩-২ গোলে লুডোগোরেটসকে হারায়। এছাড়া বরুসিয়া-সেল্টিক এবং অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ও রোস্তভের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়।